Date : 2022-10-03

আইপিএলে বেটিং, গ্রেফতার একাধিক

আইপিএলে বেটিং নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই। সেই তদন্তে পাকিস্তানের যোগ পেয়েছেন তদন্তকারিরা, সুত্রের খবর তেমনটাই। হাওয়ালার মাধ্যমে আইপিএলে লাগানো টাকা বাইরের দেশে যেত দিল্লি, যোধপুর, জয়পুর এবং রাজস্থানে এই।বেটিং চক্র মাথা চড়া দিয়ে উঠেছে। তাই বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার তদন্তকারি অফিসাররা। এই বেটিং চক্র চালানোর জন্য ভুয়ো তথ্য দিয়ে ব্যঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলেছে বুকিরা। সেই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমেই চলছে আর্থিক লেনদেন। ভুয়ো তথ্য দিয়ে কিভাবে অ্যাকাউন্ট খোলা হল, সেই নিয়ে বেশ কয়েকটি ব্যঙ্কের কর্মিরাও সিবিআইয়ের অফিসারদের আতশ কাঁচের তলায় রয়েছে। শুধু সিবিআই নয় আইপিএল বেটিং নিয়ে বিভিন্ন রাজ্যের পুলিশও সক্রিয় রয়েছেব ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজনকে আইপিএলে বেটিংয়ের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। সিবিআই তিনজনকে পাকিস্তানের সঙ্গে বেটিং বিষয় যুক্ত থাকার জন্য গ্রেফতার করা ছাড়াও বদোদরা পুলিশ 6 জনকে গ্রেফতার করেছে। সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার হওয়া তিন জনের মধ্যে একজন দিল্লির, বাকি দুজন হায়দরাবাদের। শুধু বেটিং করাই নয়, ম্যাচের ফল পরি঵র্তনেও তাদের ভুমিকা থাকতে পারে, ফলে এই বিষয়টা ভাবাচ্ছে তদন্তকারি সংস্থাকে। সিবিআইয়ের জালে তিন অভিযুক্তের নাম দিলীপ কুমার, গুরুরাম বাসু এবং গুরুরাম সতীষ। 2013 সাল থেকে অভিযুক্তরা বেটিং চক্র চালাচ্ছে বলে অভিযোগ। মানুষকে প্রতারণার অভিযোগও রয়েছে তাঁদের বিরুদ্ধে। সাধারন মানুষকে ক্রিকেট বেটিং সঙ্গে জড়িত করার জন্য তাঁদের বিপক্ষে প্রতারণার ধারাও লাগু করা হচ্ছে। তবে দেশের প্রতিযোগিতায় বিদেশি অর্থের লেনদেন বা বিদেশে টাকা যাওয়া নিয়ে চিন্তায় রয়েছে কেন্দ্রীয় সংস্থা। ফলে বিষয়টিকে বাড়তি গুরুত্ব দিয়েই দেখছে বিভিন্ন রাজ্যের পুলিশও। আগামি দিনের দেশের বেশ কয়েকটি রাজ্যে বুকিদের ধরতে অভিজান চালানো হতে পারে।