Date : 2022-11-29

বাসন্তী হাইওয়ের পথ দুর্ঘটনা এড়াতে তৈরি হতে চলেছে কলকাতা লেদার কমপ্লেক্স ট্রাফিক গার্ড

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক: বাসন্তী হাইওয়েতে পথ দুর্ঘটনা এড়াতে তৈরি করা হচ্ছে নয়া ট্রাফিক গার্ড। বাসন্তী হাইওয়ের নজরদারি বাড়াতে ইতিমধ্যেই নবান্নে কলকাতা লেদার কমপ্লেক্স ট্রাফিক গার্ড তৈরির প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

ইস্ট ডিভিশনের তিলজলা ট্রাফিক গার্ডের অন্তর্ভূক্ত বাসন্তী হাইওয়ে কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের মাথা ব্যথার অন্যতম কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিলজলা গার্ডের মধ্যে রয়েছে বাসন্তী হাইওয়ের ১৭ কিলোমিটার দীর্ঘ পথ। পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু এই এলাকার নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। গত ৬ মাসে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে প্রায় ২২-২৫ জনের। কয়েক মাস আগে তিলজলা ট্রাফিক গার্ডেরই এক সার্জেন্ট ডিউটিরত অবস্থায় পথ দুর্ঘটনায় বাসন্তী হাইওয়েতেই মারা যান। ওই এলাকায় একের পর এক দুর্ঘটনা এড়ানো যায় কিভাবে, তা নিয়ে নাজেহাল অবস্থা ট্রাফিকের আধিকারিকদের।

ট্রাফিকের মাসিক রিভিউ মিটিংয়ে এই দীর্ঘ বাসন্তী হাইওয়ে নিয়ে দফায় দফায় আলোচনা হয়েছে। ফলস্বরূপ, ওই এলাকাকে নিয়ে নয়া ট্রাফিক গার্ড তৈরি করার পরিকল্পনা নিয়েছে কলকাতা ট্রাফিক পুলিশ। কলকাতা লেদার কমপ্লেক্স নামে নতুন ট্রাফিক গার্ড তৈরি হতে চলেছে কলকাতা ট্রাফিক পুলিশ এলাকায়। ইতিমধ্যেই এই পরিকল্পনায় কয়েক ধাপ এগিয়েছে কলকাতা পুলিশ। নগরপাল বিনীত গোয়েল চিঠি মারফত নতুন ট্রাফিক গার্ডের জন্য আবেদন করেছেন অতিরিক্ত মুখ্য সচিবকে। আবেদন মঞ্জুর হলেই কাজ শুরু হবে নয়া ট্রাফিক গার্ডের। নতুন ট্রাফিক গার্ড তৈরিতে বেশ কয়েকটি প্রতিবন্ধকতাও রয়েছে বলে মনে করছে ট্রাফিকের একাংশ। নতুন গার্ড তৈরি করতে গেলে প্রায় ৭০-৮০ জন পুলিশ কর্মী প্রয়োজন রয়েছে। এর মধ্যে ২ জন ইন্সপেক্টর ৱ্যাঙ্কের, ২০ জন সার্জেন্ট, ১০ জন অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব ইন্সপেক্টর ও বাকি প্রায় ৪০-৫০ জন কনস্টেবল দরকার। বিগত ৭-৮ বছরে কলকাতা পুলিশে সার্জেন্ট নিয়োগ হয়নি। ঘাটতি রয়েছে কনস্টেবল পদেও। তবে কলকাতা লেদার কমপ্লেক্স ট্রাফিক গার্ড তৈরি হলে বাসন্তী হাইওয়েতে বাড়বে নজরদারি। বাড়তি সিসিটিভি লাগানো হবে, রোড মার্কিং, রোড ডিভাইডার, হাম্প তৈরি করা হবে রাস্তায়। রাস্তার দু’পাশ চওড়া করার পাশাপাশি আলো দেওয়া হবে যথেষ্ট পরিমাণে। ফলে পথ দুর্ঘটনা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এতদিন বাসন্তী হাইওয়েতে পণ্যবাহী যান চলাচলের ক্ষেত্রে ৪০ কিমি, প্রাইভেট গাড়ির ক্ষেত্রে ৫০ কিমি ও বাইকের ক্ষেত্রে ৬০ কিমি গাড়ির গতিবেগ রাখার নির্দেশ ছিল। বুধবার থেকে নয়া নিয়ম অনুযায়ী সমস্ত গাড়ির ক্ষেত্রে ৬০ কিমি গতিবেগ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এর ফলে দুর্ঘটনা খানিকটা এড়ানো যাবে বলে মনে করছে ট্রাফিক আধিকারিকরা। তবে সব ঠিক থাকলে চলতি বছরেই নতুন গার্ড সংযোজিত হতে চলেছে কলকাতা ট্রাফিক গার্ডের তালিকায়।