Date : 2022-11-27

বুধবার এশিয়ান কাপে ভারতের সামনে কম্বোডিয়া


বুধবার এএফসি এশিয়ান কাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বের প্রথম ম্যাচে কম্বোডিয়ার মুখোমুখি হচ্ছে ভারতীয় ফুটবল দল। বুধবার যুবভারতী স্টেডিয়ামে হবে এই ম্যাচ। ইতিমধ্যেই ম্যাচের টিকিটের হাহাকার শুরু হয়ে গেছে বাংলা জুড়ে। কলকাতায় কেন হোম ম্যাচ খেলতে পছন্দ করেন ভারতীয় ফুটবলাররা, তাই যেন প্রমান করে দিচ্ছে কলকাতার ফুটবলপ্রেমীরা। গ্রুপ ডিতে আফগানিস্তান, ক্যাম্বোডিয়া এবং হংকংয়ের সঙ্গে রয়েছে ভারত। কম্বোডিয়ার বিপক্ষে চোটের জন্য খেলতে পারবেন না রাহুল ভেকে। নেই মিডিও লালেংমাওউইয়া। চিকেন পক্স হয়েছে ফুটবলার ঋত্বিক দাসের। তার পরিবর্তে স্কোয়াডে এসেছেন দীপক টাঙ্গরি। যদিও চোট কাটিয়ে এই ম্যাচে ফিরছেন লিস্টন কোলাসো এবং চিংলেনসানা সিং। আক্রমনাত্মক মানসিকতা নিয়ে 4-3-3 ফর্মেশনে ছক সাজাচ্ছেন ভারতীয় কোচ ইগর স্টিম্যাচ। সামনে সুনীল ছেত্রীর সঙ্গী হতে চলেছেন লিস্টন কোলাসো, মনভির সিং। মাঝমাঠে অনিরুদ্ধ থাপা, সাহাল আবদুল সামাদ এবং সুরেশ সিংকে রাখতে পারেন ভারতের জাতীয় কোচ।

এদিকে কম্বোডিয়া দল শেষ তিন বছরে 18টি ম্যাচ খেলেছে। তার মধ্যে 11টিতেই জিতেছে তাঁরা। ড্র হয়েছে পাঁচটি ম্যাচ এবং হেরেছে মাত্র দুটি ম্যাচে। ফলে ভারতের জন্য যে কঠিন পরীক্ষা অপেক্ষা করছে বুধবার, তা বলাই যায়। কম্বোডিয়া দলের সব থেকে অভিজ্ঞ ফুটবলার সোস সুহানা। জাতীয় দলের হয়ে প্রায় 60টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। ম্যাচে নামার আগে ফুটবলারদের ভিডিও ক্লাসে ভারতের শক্তি এবং দুর্বলতা দেখিয়ে দিয়েছেন তাঁদের কোচ। ভারতের ঘরের মাঠে খেলা হওয়ায় ভারতই প্রবলতর ভুমিকায় অবতীর্ণ হবে, কারণ সমর্থক সম্পূর্ণ সমর্থন পাবে। তাই ভারতের ১১ জনের বিরুদ্ধেই শুধু নয়, স্টেডিয়ামের দ্বাদশ সদস্যদের বিপক্ষেও লড়তে হবে কম্বোডিয়াকে। দুই দলের মুখোমুখি সাক্ষাতে 4 বারের মধ্যে 3বারই জিতেছে ভারত। 2017 সালে শেষ সাক্ষাতে কম্বোডিয়াকে হারিয়েছিল ভারত। এখন দেখার, এএফসি কাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বের প্রথম ম্যাচে ব্লু টাইগার্সরা জিততে পারে কিনা। তবে ম্যাচ যে টানটান হবে এবং সুনীলদের এই ম্যাচে প্রধান অস্ত্র যে কলকাতার ফুটবল প্রেমীরা আর্থাত্ দলের দ্বাদশ সদস্যরা, তা বলাই যায়।