Date : 2022-11-29

মানবিক যুব তৃণমূল নেত্রী। পথ দূর্ঘটনায় আহত মহিলাকে হাসপাতালে পাঠালেন সায়নী ঘোষ।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক : যুব তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সভানেত্রী সায়নী ঘোষের তৎপরতায় পথ দূর্ঘটনায় আহত এক মহিলা পেলেন চিকিৎসা। সায়নীর অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার ওই মহিলাকে ধাক্কা মেরে পালিয়ে যাওয়া গাড়ির চালক।

শনিবার কালনার একটি রক্তদান শিবির থেকে কলকাতা ফিরছিলেন সায়নী ঘোষ। পথে বলাগড়ের শেরপুর বাস স্ট্যান্ডের কাছে একটি জটলা দেখে গাড়ি থেকে নামেন তিনি। দেখেন গাড়ির ধাক্কায় আহত এক মহিলা রাস্তায় পরে আছেন। স্থানীয়দের কাছ থেকে জানতে পারেন একটি সুইফ্ট গাড়ি তীব্র গতিতে যাওয়ার সময় ওই মহিলাকে ধাক্কা মেরে পালিয়ে যায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান গাড়িটি বলাগড়ের দিকে চলে গিয়েছে। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে শনিবার কালনার একটি রক্তদান শিবির থেকে কলকাতা ফিরছিলেন সায়নী ঘোষ। পথে বলাগড়ের শেরপুর বাস স্ট্যান্ডের কাছে একটি জটলা দেখে গাড়ি থেকে নামেন তিনি। দেখেন গাড়ির ধাক্কায় আহত এক মহিলা রাস্তায় পরে আছেন। স্থানীয়দের কাছ থেকে জানতে পারেন একটি সুইফ্ট গাড়ি তীব্র গতিতে যাওয়ার সময় ওই মহিলাকে ধাক্কা মেরে পালিয়ে যায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান গাড়িটি বলাগড়ের দিকে চলে গিয়েছে। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করেন সায়নী। নিজে দাঁড়িয়ে থেকে আহত ওই মহিলাকে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থাও করেন।

তারপর প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে গাড়ির নম্বর পেয়ে সোজা বলাগড় থানায় অভিযোগ জানান তিনি। যুব নেত্রীর অভিযোগ পেয়ে কিছুক্ষণের মধ্যেই গাড়িসহ অভিযুক্ত ওই গাড়িচালককে গ্রেফতার করেন বলাগড় থানার পুলিশ। এই ঘটনা প্রসঙ্গে সায়নী ঘোষ জানান, “মানুষ হওয়ার প্রথম শর্ত মানবিকতা। যে কোনো মানুষেরই অন্য মানুষের পাশে থাকা দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। রাজনৈতিক যোগাযোগের কারণে কিছু কাজ আমাদের জন্য সাধারণ মানুষের তুলনায় সহজ। ফলত, নিজের জায়গা থেকে যেটি কর্তব্য বলে মনে হয়েছে সেটিই করেছি।” আহত ভদ্রমহিলার দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন সায়নী ঘোষ।

প্রসঙ্গতঃ মাস খানেক আগে উত্তর ২৪ পরগনার এক জনসভায় যাওয়ার পথে আহত এক সাইকেল আরোহী কে দেখতে পেয়ে গাড়ি থেকে নেমে পড়েছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনিও সেদিন আহত ওই ব্যক্তির বিষয়ে খোঁজখবর করে তারপর সভাস্থলের উদ্দেশ্যে র‌ওনা হন।