Date : 2022-08-18

বোমা রেখে নিজেদের প্রস্তুতি পরীক্ষা

পৌষালী সেনগুপ্ত, নিউজ ডেস্ক : যে পুলিশ বোমা নিষ্ক্রিয় করে সেই পুলিশ কিনা বোমা রাখল শহরের বিভিন্ন জায়গায়। কিন্তু প্রশ্ন হল পুলিশ বোমা রাখতে গেল কেন। বিষয়টি খোলসা করে বলা যাক। পরিস্থিতি ভয়াবহ হলে নিজেরা করটা প্রস্তুত তা পরীক্ষা করতে দিল্লি পুলিশ শহরের বিভিন্ন ব্যস্ততম জায়গায় বোমা রাখে। তবে আসল নয়। ভুয়ো বোমা। বিজেপির নিলম্বিত মুখপাত্র নূপুর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে সম্প্রতি আলকায়দা দিল্লি, মুম্বই, উত্তরপ্রদেশ এবং গুজরাতে আত্মঘাতী হামলা চালানোর হুমকি দিয়েছিল।সেই হামলা ভেস্তে দেওয়ার জন্য রাজধানীর পুলিশ কতটা প্রস্তুত তার একটা নমুনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলিতে ৩০টি ভুয়ো বোমা রাখা হয়েছিল। দুটি দফায় তা রাখা হয়। ৩০টির মধ্যে প্রথম দফায় ১৫টি বোমা রাখা হয় গত ১২ জুন। তার মধ্যে ১০টি বোমাকে খুঁজে বার করতে পেরেছিল দিল্লি পুলিশ। বাকি দু’টি খুঁজে পায়নি তারা।আবার ২৮ জুন আরও এক দফায় ১৫টি বোমা রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় লুকিয়ে রাখা হয়।সেই দফায় মাত্র দু’টি বোমা খুঁজে পেয়েছিল পুলিশ। দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেল এই বোমাগুলি রেখেছিল। এই পরীক্ষার মধ্যে দিয়েই রাজধানীর নিরাপত্তা ব্যবস্থা কতটা মজবুত তা খতিয়ে দেখাই ছিল মূল উদ্দেশ্য।পুলিশের শীর্ষ কর্তারা প্রস্তাব দিয়েছেন এই ধরনের পরীক্ষা বিমানবন্দর, মেট্রো, রেলস্টেশনেও চালানোর। প্রতি মাসে দু’বার করে এই ধরনের মহড়ার প্রস্তাব দিয়েছেন তাঁরা।বোমা রাখার বিষয়টি অবশ্য পুলিশই প্রকাশ্যে এনেছে।এই পরীক্ষার মধ্যে দিয়েই নিজেরাই নিজেদের পরিস্থিতি বুঝতে পারল দিল্লি পুলিশ।এবার সতর্ক হওয়ার কথাও ভাবছে তাঁরা। আরও বিশেষ প্রশিক্ষণ শিবিরের আয়োজন করার কথাও ভাবছে দিল্লি পুলিশ। কারণ এখনই সচেতন না হলে পরবর্তীতে তাঁদের সমস্যায় পড়তে হবে।