Date : 2022-08-10

উর্ধ্বমুখী গ্রাফে আতঙ্ক

পৌষালী সেনগুপ্ত, নিউজ ডেস্ক : গত দেড় মাস ধরে দেশজুড়ে নতুন করে মাথাচাড়া দিয়েছে সংক্রমণ।ক্রমেই বাড়ছে কোভিডের চতুর্থ ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কা। প্রতিটি রাজ্যে ফের টেস্টিং এবং টিকাকরণে জোর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ২৩ শতাংশ বাড়ল সংক্রমণের হার।বুধবার স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৬,১৫৯ জন। গতকালের তুলনায় যা বেশি। দৈনিক সংক্রমণের পাশাপাশি বাড়ল অ্যাকটিভ কেসও। বর্তমানে দেশের সক্রিয় রোগী বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ১৫ হাজার ২১২। গোটা দেশে অ্যাকটিভ কেসের হার ০.২৬ শতাংশ। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, ভারতে একদিনে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ২৮ জন। দেশে এখনও পর্যন্ত কোভিডে মোট মৃতের সংখ্যা ৫ লক্ষ ২৫ হাজার ২৭০। মহারাষ্ট্রের সংক্রমণের ছবিটা বেশ উদ্বেগজনক। একদিনে সেখানে সংক্রমিতের হার ১০৩ শতাংশ বেড়েছে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৯৮ জন।

অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যাও হু হু করে বাড়ছে। সেই তুলনায় স্বস্তিজনক দিল্লির সংক্রমিতের সংখ্যা। রাজধানীতে একদিনে আক্রান্ত ৪২০ জন। পজিটিভিটি রেট ৫.২৫ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন একজন।পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত দেশে ৪ কোটি ২৮ লক্ষ ৫১ হাজার ৫৯০ জন করোনা থেকে মুক্ত হয়েছেন। যার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সেরে উঠেছেন ১৫,৩৯৪ জন। সুস্থতার হার ৯৮.৫৩ শতাংশ। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য জানাচ্ছে, এখনও পর্যন্ত দেশে ১৯৮ কোটি ২০ লক্ষেরও বেশি ডোজ করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে গতকাল ভ্যাকসিন পেয়েছেন প্রায় ১০ লক্ষের বেশি। টিকাকরণের পাশাপাশি করোনা রোগী চিহ্নিত করতে জোর দেওয়া হচ্ছে টেস্টিংয়েও।