Date : 2022-08-10

রাজনীতির পাকদন্ডী পেরিয়ে ফের পথ চলা শুরু জিটিএ-র। মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে মঙ্গলে শপথ

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক : দীর্ঘ পাঁচ বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে ইতিমধ্যেই নির্বিঘ্নে শেষ হয়েছে জিটিএ(গোর্খাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন)-র নির্বাচন। এবার সেই জিটিএ-র কাজের শুরু। মঙ্গলবার দার্জিলিং এর চৌরাস্তায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে হবে নতুন বোর্ড গঠন ও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান। সোমবার বিকালেই দার্জিলিং পৌঁছেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

মার্চ মাসে পাহাড় সফরে এসে মুখ্যমন্ত্রী পাহাড়ের রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। জানতে চেয়েছিলেন জিটিএ নির্বাচন নিয়ে তাদের কি মত, কারণ রাজ্য সরকার বকেয়া জিটিএ নির্বাচন করাতে, পাহাড়ের মানুষের কাছে উন্নয়ন কে পৌঁছে দিতে বদ্ধপরিকর। জুন মাসেই শেষ হয়েছে নির্বাচন। সবাইকে চমকে দিয়ে নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে অনীত থাপার দল ‘বিজিপিএম'(ভারতীয় গোর্খা প্রজাতান্ত্রিক মোর্চা)। বিজিপিএম এর সহযোগী হিসাবে লড়াই করে তৃণমূল কংগ্রেস‌ও মাত্র দশ টা আসনে লড়াই করে পাঁচ টা আসনে জয় ছিনিয়ে নিয়েছে। এবার পালা বোর্ড গঠন করে পাহাড়ের মানুষের কাছে পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার। যার শুরু হতে চলেছে মঙ্গলবার দার্জিলিং চৌরাস্তায় শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে।

এই শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য সোমবারই দার্জিলিং এসে পৌঁছেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার বেলা দুটো নাগাদ বাগডোগরা এয়ারপোর্টে নামেন মুখ্যমন্ত্রী। এয়ারপোর্টে মুখ্যমন্ত্রী কে অভ্যর্থনা জানাতে যান বিজিপিএম নেতা অনীত থাপা। বিমানবন্দর থেকে বাই রোড দার্জিলিংয়ের রিচমন্ড হিলে পৌঁছান বিকেল চারটে নাগাদ। পথে বিভিন্ন জায়গায় মুখ্যমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানাতে পথের দুই ধারে পাহাড়বাসীর ভিড় লক্ষ্য করা যায়। এদিকে দার্জিলিং চৌরাস্তায় শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি সম্পূর্ণ।

গত সপ্তাহে মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাতে যখন অনেক থাপা নবান্নে গিয়েছিলেন তখন তিনি বলেছিলেন পাহাড়ের জন্য একটা এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জ করার ইচ্ছা তাঁর আছে। এখন দেখার বিষয় মঙ্গলবার শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পাহারবাসীর জন্য নতুন কিছু ঘোষণা করেন কিনা। মঙ্গলবারের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে পাহড়ের সবকটি রাজনৈতিক দলকেই‌ কিন্তু জিটিএ নির্বাচনে অংশ না নেওয়া বিজেপি বা গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার কোন প্রতিনিধি উপস্থিত থাকেন কি না সেটাই এখন দেখার।