Date : 2022-08-11

চাকরি প্রার্থীদের চাকরি চায় না বিরোধীরা। ক্যামাক স্ট্রীটে চাকরি প্রার্থীদের অবস্থানের ঘটনায় বললেন কুনাল ঘোষ।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক : শুক্রবার এস‌এসসি চাকরি প্রার্থীদের একটি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠক করেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তাদের চাকরির বিষয়ে যেসব জটিলতা রয়েছে তা মিটিয়ে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তাদের চাকরির যাতে ব্যবস্থা করা যায়, তার জন্য সচেষ্ট হন তিনি। কিন্তু তারপরেই শুক্রবার রাতভর অভিষেকের অফিসের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ করে টেট উত্তীর্ণ চাকরি প্রার্থীদের একাংশ। যা চলে শনিবার প্রায় সাড়ে বারোটা পর্যন্ত। তারপর পুলিশ এসে চাকরি প্রার্থীদের এলাকা থেকে সরিয়ে দেয়। অভিষেকের বৈঠক ও চাকরি প্রার্থীদের অবস্থান নিয়ে সরকার ও সরকারি দলকে বিঁধতে শুরু করেছে বিরোধী দলগুলো। শনিবার তার‌ই উত্তর দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের অন্যতম রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুনাল ঘোষ।

শনিবার বৌবাজার এলাকায় স্বর্গীয় সোমেন মিত্রের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে একটি রক্তদান শিবির করে স্থানীয় একতা সংঘ ক্লাব। সেখানে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল বিধায়ক তাপস রায়, তৃণমূল মুখপাত্র তথা অন্যতম সাধারণ সম্পাদক কুনাল ঘোষ প্রমূখ।

সেখানেই কুনাল ঘোষ বলেন, “অভিষেক একটা জট ছাড়াবার চেষ্টা করছে। দলনেত্রীর সঙ্গে কথা বলেই তিনি এইসব চাকরি প্রার্থীদের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে দেখা করেছেন। সেখানে তৃণমূল বিধায়ক হিসাবে ব্রাত্য বসু বা দলের মুখপাত্র হিসাবে আমি ছিলাম। ওখানে তো কোনো সরকারি আধিকারিকরা ছিলেন না। এস‌এসসি-র চেয়ারম্যান ছিলেন না। দলের পক্ষ থেকে একটা চেষ্টা করা হচ্ছে। এতে আপত্তি কেন ?” এই প্রসঙ্গেই বিরোধীদের বক্তব্য, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তো আর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নন, তিনি তো আর চাকরি দিতে পারবেন না। তাহলে এতদিন পর হঠাৎ কেন অভিষেককে বৈঠক করতে হচ্ছে ? বিরোধীদের এই অভিযোগে এক হাত নিয়ে কুনাল ঘোষ বলেন, “যখন জে পি নাড্ডা দিল্লিতে বিজেপির অফিসে বিদেশি রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে বৈঠক করেন, সেখানে বিদেশ মন্ত্রীও উপস্থিত হন, তখন বিজেপির অসুবিধা হয় না! যখন হলদিয়ায় শিল্প গড়ার আগে আলিমুদ্দিনে বৈঠক হয় তখন সিপিএমের অসুবিধা হয় না! যখন মনমোহন সিং এর প্রধানমন্ত্রীত্বের সময় ১০ জনপথ থেকে সরকার চলতো তখন কংগ্রেসের অসুবিধা হয় না ! যত অসুবিধা শুধু অভিষেক বৈঠক করলে?” এরপর কুনাল ঘোষ নিজেই বিরোধী বিজেপি, সিপিএম বা কংগ্রেস কে আক্রমণ করে অভিযোগ করেন, “ওরা চায় না ওই ছেলে মেয়েগুলোর চাকরি হোক। আসলে ওদের কে সামনে রেখে এরা নিজেদের রাজনীতি করতে চায়। তাই ওদের ভুল বুঝিয়ে ক্যামাক স্ট্রীটে অবস্থান করতে পাঠিয়েছে।”