Date : 2022-12-06

চুল নিয়ে নাজেহাল? সমাধান হাতের মুঠোয়

সায়ন্তিকা ব্যানার্জি, সাংবাদিকঃ চুল ব্যক্তিত্ব গঠনে প্রাথমিক ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বাজারে প্রচুর প্রোডাক্ট রয়েছে, যা চুলের জন্য স্বাস্থ্যকর বলে বিক্রি করা হলেও আদতে তারা ক্ষতিকর

তাই বাজার চলতি জিনিসে নয় এবার আপনাত চুল ভালো হোক একেবারে ঘরোয়া উপাদানেই। কারণ এতে কোন কেমিক্যাল নেই।

চুলের সামগ্রিক দেখভালের জন্য সপ্তাহে এক দিন অ্যালো ভেরা জেলের সঙ্গে ভিটামিন ই মিশিয়ে চুলে মেখে নিন। মাথার ত্বক থেকে চুলের ডগা পর্যন্ত লাগিয়ে, এক ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন। মসৃণ হবে চুল।

একটা বাটিতে দুই চামচ আমলকী পাউডার ও দুই চামচ মেথিগুঁড়ো নিন। এবার পাঁচ চামচ গরম জল দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। সারারাত মিশ্রণটি রেখে দিন। পরের দিন স্নানের ২০ মিনিট আগে প্যাকটি চুলে লাগান। ঠান্ডা জল ও সালফেট মুক্ত নরম শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। সপ্তাহে এক থেকে দু’বার এই হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন।

মধু, ক্যাস্টর অয়েল ও দারুচিনি তেল দিয়ে বানাতে পারেন প্যাক। একটি পাত্রে সম পরিমাণে দারুচিনি তেল ও ক্যাস্টর অয়েল নিন। ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার তাতে মেশান মধু। ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার তা স্ক্যাল্প থেকে চুলের ডগা পর্যন্ত লাগান। কিছুক্ষণ পর শ্যাম্পু করে নিন। মিলবে উপকার। মিলবে উপকার।