Date : 2022-12-03

২০২২ এর টেটে বিশেষ ছাড় সংরক্ষিত শ্রেণির পরীক্ষার্থীদের।

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক : চলতি বছরের ১১ডিসেম্বর প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের টেট। ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে টেটের আবেদন পত্র তোলা ও জমার দেওয়ার প্রক্রিয়া। প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগে স্বচ্ছতা বজায় রাখতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে পর্ষদ। ইতিমধ্যেই আবেদনপত্র পড়তে শুরু করেছে। পর্ষদ সূত্রের খবর প্রথম দিনই হাজারের বেশি আবেদন জমা পড়েছে। আরও আবেদন জমা পড়বে বলে মত পর্ষদের। ১৫০টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে পরীক্ষার্থীদের। কোন রকম নেগেটিভ মার্কিং থাকবে না। মাল্টিপল চয়েস প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে পরীক্ষার্থীদের। পরীক্ষার্থীদের সুবিধার জন্য এবার প্রথমবার ইনফর্মেশন বুকলেট দেওয়া হবে ওয়েবসাইট। যেটা গাইডলাইনের কাজ করবে বলে মত পর্ষদের। কোন কোন বিষয়ের উপর নির্ভর করে প্রশ্ন হবে তার নমুনাও থাকবে বুকলেটে। প্রথমবার পর্ষদের পক্ষ থেকে পরীক্ষার্থীদের সুবিধার জন্য এমন নেওয়া হয়েছে এতে পরীক্ষার্থীদের অনেকটাই সুবিধা হবে বলে মত পর্ষদের।

এবার অনেক কিছু বদল করা হয়েছে ২০২২ এর টেটে।তপশিলি জাতি, উপজাতি এবং অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণীর জন্য বিশেষ ছাড় দেওয়া হয়েছে। এছাড়া দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষার নম্বর এর ক্ষেত্রেও তপশিলি জাতি, উপজাতি ও অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণী পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ ছাড় দেওয়া হয়েছে। সাধারণ পরীক্ষার্থীদের যেখানে ৫০ শতাংশ নাম্বার থাকতে হবে সেখানে সংরক্ষিত প্রার্থীদের জন্য ৪৫ শতাংশ নম্বর থাকলেই আবেদন করতে পারবে। সংরক্ষণ তালিকাভুক্তদের পাশাপাশি শারীরিক দিক থেকে বিশেষভাবে অক্ষম পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ ছাড় দেওয়া হয়েছে।

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা এবং নিয়োগ প্রক্রিয়ায় যাতে স্বচ্ছতা বজায় থাকে সে দিকে কড়া নজর দেওয়া হবে বলেই জানিয়েছেন পর্ষদ সভাপতি। প্রতি বছর যেমন টেট হবে তেমনই বছরে দুবার করে শিক্ষক নিয়োগ করা হবে বলেও জানান তিনি। এর ফলে টেট পাশ করা চাকুরী প্রার্থীদের দীর্ঘ দিন অপেক্ষা করতে হবে না বলেও মত তাঁর।