Date : 2022-12-03

“ছাপ্পা প্রমাণ করতে পারলে ইস্তফা দেবো।” চ্যালেঞ্জ ফিরহাদ হাকিমের

বছর ঘুরলেই পঞ্চায়েত নির্বাচন। বিরোধীরা ইতিমধ্যেই অভিযোগ করতে শুরু করেছে ছাপ্পা ভোট করতে না পারলে তৃণমূল কংগ্রেস কোথাও জিততে পারবে না। নিজের ওয়ার্ডের নির্বাচনকে সামনে রেখে বিরোধীদের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিমের বক্তব্য “ছাপ্পা প্রমাণ করতে পারলে ইস্তফা দেবো।”

কয়েকদিন আগে মেডিক্যাল কাউন্সিলের নির্বাচন হয়। সেই নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি হয়েছে বলে অভিযোগ বিরোধীদের। তৃণমূল পন্থী চিকিৎসক নেতাদের জেতাবার জন্য ছাপ্পা ভোট দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তৃণমূল নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী বলেন, “কয়েকদিন আগেই আমার ওয়ার্ডে (কলকাতা পুরসভার ৮২ নম্বর ওয়ার্ড) নির্বাচন হয়েছে। আমি পনেরো হাজার ভোটে জিতেছি। এই পুরো ওয়ার্ডে একটা লোক দেখিয়ে দিন যে দাঁড়িয়ে বলবেন আমি ভোট দিতে পারি নি। তাকে নিয়ে আমি নিজের টাকায় কোর্টে যাবো। আপীল করবো। কোর্টের পারমিশন নিয়ে তার স‌ই ভেরিফাই করাবো। যদি দেখি স‌ই তার নয়, তাহলে আমি নিজে ইস্তফা দেবো।” বিরোধীদের প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে ফিরহাদ হাকিমের মন্তব্য, “তৃণমূল কংগ্রেস শক্ত দল। আমি অনৈতিক কাজ জীবনে করি নি, করবো‌ও না।”

এদিকে পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী উদয়ন গুহর বিতর্কিত মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় ফিরহাদ হাকিম বলেন, “আমরা মারামারিতে বিশ্বাস করি না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোনোদিন মারের রাজনীতি করেন নি, তিনি নিজে মার খেয়েছেন। আমরা গান্ধীর নীতিতে বিশ্বাস করি, মারামারিতে নয়। বিরোধীরা যদি লাঠি মারে আমি বুক চিতিয়ে বলবো মারো, কিন্তু গণতন্ত্রকে হত্যা কোরো না।”