Date : 2022-12-03

আইনি ফাঁসে বিরোধী দলনেতা! রক্ষাকবচ পেতে হাইকোর্টের স্মরণাপন্ন ।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক:- উষ্কানীমূলক মন্তব্যর জেরে ফের আইনের দরবারে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।তৃণমূল কংগ্রেসের ঘর ছেড়ে আসার পর একের পর এক রাজনৈতিক অরাজনৈতিক মন্তব্য বক্তব্য জেরে নিজের বার বার বিদ্ধ হয়েছেন।এবার ডাক পড়েছে নিম্ন আদালতে।
বিরোধী দলনেতা বলেন, “লক্ষ্মীপুজোর দিন বাংলাদেশের নোয়াখালীতে দশ হাজার হিন্দু হত্যা করে জেহাদীরা। পাশাপাশি আমাদের মোমিনপুর, খিদিরপুর এবং ইকবালপুরের মত এলাকায় অসংখ্য হিন্দুদের দোকান এবং বাড়ি জ্বালানো হয়। ২০ বছর আগে এই এলাকায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের জনসংখ্যা ৫০ শতাংশের উপর থাকলেও বর্তমানে সেই শতাংশ ২০-র নিচে নেমেছে। এরা আসলে হিন্দুদের শূন্য করে দিতে চায়।”

এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে তিনি বলেন, “হিন্দু শূন্য হলে আফগানিস্তানের মত অবস্থা হবে। ধর্ম এবং দেশ ছাড়তে বলবে। ওদিকে বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং এদিকে বঙ্গোপসাগর। হয় জলে ঝাঁপ দিতে হবে, নয়তো ইসলামিক দেশগুলোতে গিয়ে ধর্ম বদলাতে হবে। এখন যদি আপনারা (হিন্দু) না জাগেন, তাহলে আর কবে জাগবেন?” আর এ সকল মন্তব্যের জেরেই জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করা হয় ।

উস্কানিমূলক মন্তব্যের জেরে সম্প্রতি নিম্ন আদালতে মামলা দায়ের করা হয় বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে। আর এবার আদালতে হাজিরা এড়াতে কলকাতা হাইকোর্টের নিকট দারস্থ হলেন শুভেন্দু অধিকারী। দ্রুত শুনানির আর্জি নিয়ে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব ও বিচারপতি রাজর্ষি ভারদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে দ্বারস্থ হন।আগামী সপ্তাহে মামলার শুনানি সম্ভাবনা।