Date : 2024-07-16

সুবিধাবাদী বাজেট, ভাওতাবাজির বাজেট। আধ ঘন্টা সময় দিলে এর থেকে ভালো বাজেট করে দেখিয়ে দিতাম। বাজেট প্রতিক্রিয়ায় বললেন মুখ্যমন্ত্রী

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ কেন্দ্রীয় বাজেট নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার বোলপুরে সরকারি মঞ্চে দাঁড়িয়ে কেন্দ্রীয় বাজেট কে লোক দেখানো, গরীব বিরোধী বাজেট বলে উল্লেখ করলেন তিনি।

এদিন বোলপুরের ডাকবাংলো ময়দানে ছিলো সরকারের পরিষেবা প্রদান অনুষ্ঠান। সেই সঙ্গে ছিলো সরকারের বেশকিছু প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস। এদি‌ন‌ই আবার ছিলো কেন্দ্রীয় বাজেট। স্বাভাবিকভাবেই কেন্দ্রীয় বাজেট নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি বলেন সেদিকে সকলের আগ্রহ ছিলো। দেখা গেল বাজেট শেষ হ‌ওয়ার পরেই মুখ্যমন্ত্রী অনুষ্ঠান মঞ্চে আসেন। সূত্রের খবর, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের বাজেট পাঠের অনেকটা অংশ‌ই তিনি নিজে শুনে নোট নিয়েছেন। এরপর বোলপুরের সভামঞ্চ থেকে বাজেট নিয়ে সরাসরি তোপ দাগেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “কেন্দ্রের সরকার নাকি আজকে একটা বাজেট করেছে। বাজেট না কি অন্য কিছু। মুখে বলছে দারুণ নাকি একটা বাজেট করেছে। কি দারুণ ! একটাও কথা তো বেকারদের জন্য নেই। এটা একটা অপুরচুনিষ্ট বাজেট, অ্যান্টি পুওর বাজেট।” ফুড সাবসিডি তুলে দেওয়া নিয়ে তিনি বলেন, “আরেকটা বড় কেলেঙ্কারি করে ফেলেছে কেন্দ্র সরকার বাজেটে। ফুড সাবসিডি ওরা তুলে দিয়েছে। গরীবকে ভাতে মারার চেষ্টা।” এরপরেই তিনি কিছুটা কটাক্ষের সুরেই বলেন, “আমাকে আধ ঘন্টা সময় দিলে দেখিয়ে দিতাম কিভাবে গরীব মানুষের জন্য বাজেট করতে হয়। আমিও অনেকবার বাজেট পেশ করেছি। আমি জানি ওসব।এই বাজেট শুধুই গরীব লোকেদের বিরুদ্ধে বাজেট, অ্যান্টি পিউপিল বাজেট। শুধু মিথ্যা কথা, ভাওতাবাজি, লোক দেখানোর বাজেট।” মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করে বলেন, “অপপ্রচারের এই বাজেট শুধুই ভোটের বাজেট।” ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনের আগে কেন্দ্রীয় সরকারের এটাই শেষ পূর্নাঙ্গ বাজেট পেশ। কারণ পরের বছর যেহেতু ভোটের বছর তাই কেন্দ্র পূর্ণাঙ্গ বাজেট পেশ করতে পারবে না। ভোট অন অ্যাকাউন্ট পেশ করতে হবে। তাই এই বাজেটকেই ভোটমুখি বাজেট বলে অভিহিত করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনটাই মত অনেকের।