Date : 2024-06-12

এনআইআরএফ র‌্যাঙ্কিং এ সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় নেই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় রাজ্যের মান রাখল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়।

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক : প্রতিবছরের মত এবারও প্রকাশিত হল ন্যাশনাল ইন্ডিয়ান র‌্যাঙ্কিং ফ্রেমওয়ার্ক বা এনআইআরএফ ২০২৩এর তালিকা। দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় রাজ্যের মান রাখল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। অন্যদিকে সেরার তালিকায় নেই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। ২০২২ সালে সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় প্রথম দশের মধ্যে অষ্টম স্থানে ছিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। ২০২১সালে কলকাতার স্থান ছিল চতুর্থ। কিন্তু এবার নিজের জায়গা ধরে রাখতে পারেনি ঐতিহ্যশালী প্রাচীন এই বিশ্ববিদ্যালয়। তবে দেশের মধ্যে সেরা দশে নিজেদের স্থান বজায় রেখেছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। পর পর দুবছর সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় চতুর্থ স্থানে আছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম।

সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় প্রথম দশটি হল,
প্রথম বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স। দ্বিতীয় দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়। তৃতীয় দিল্লিরই জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়।চতুর্থ স্থানে পশ্চিমবঙ্গের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। পঞ্চম বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়।ষষ্ঠ মণিপাল অ্যাকাডেমি অফ হায়ার এডুকেশন। সপ্তম কোয়েম্বাটুরের অমৃত বিশ্ব বিদ্যাপীঠম। অষ্টম ভেল্লোর ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি। নবম আলিগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটি।দশম ইউনিভার্সিটি অফ হায়দরাবাদ।

শুধুমাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় নয়। এনআইআরএফ-টির ইঞ্জিনিয়ারিং এর র‌্যাঙ্কিং তালিকায় সেরা দশে রয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম। গতবছর একাদশ স্থানে থাকলেও এবার দশম স্থানে রয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। আর ষষ্ঠ স্থানে আইআইটি খড়গপুর। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে প্রথম আইআইটি মাদ্রাস। দ্বিতীয় স্থানে আইআইটি দিল্লি। তৃতীয় স্থানে আইআইটি বোম্বে। চতুর্থ আইআইটি কানপুর। তারপর পঞ্চম আইআইটি রুরকি। এরপরই ষষ্ঠ আইআইটি খড়গপুর। সপ্তম আইআইটি গুয়াহাটি, অষ্টম আইআইটি হায়দরাবাদ, নবম এনআইটি তিরুচিরাপল্লী ও দশম যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলকাতা।

অন্য দিকে সেরা দশ কলেজের তালিকায় রয়েছে বাংলার ২টি কলেজ – পঞ্চম সেন্ট জেভিয়ার্স এবং অষ্টম হাওড়ার রামকৃষ্ণ মিশন বিদ্যামন্দির। 
যেসমস্ত বিষয়ের উপর ভিত্তি করে এই র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ করা সেগুলি হল শিক্ষাদান, শেখা এবং সংস্থান, গবেষণা এবং পেশাদারি অনুশীলন, স্নাতক স্তরের ফলাফল, এবং অন্তর্ভুক্তি এবং উপলব্ধি। এবার মোট ১২টি বিভাগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ করা হয়েছে।