Date : 2024-02-25

চুক্তি ভিত্তিক মামলায় রাজ্যের অবস্থানে বিরক্ত প্রকাশ প্রধান বিচারপতির।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়,সাংবাদিক : রাজ্যে চুক্তিভিত্তিক কর্মী নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করল কলকাতা হাই কোর্ট। সোমবার প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানমের মন্তব্য, কেউ কাজ করতে চায় না। এ ওকে দেখাচ্ছে, ও তাঁকে দেখাচ্ছে। একজন চিকিৎসক সব কাজ করবেন এটা আশা করা যায় না! হাসপাতালে ৮০ শতাংশ কর্মী চুক্তিভিত্তিক। ১২-১৩ হাজার টাকা করে বেতন পান। তাঁদের কাছ থেকে কাজের কী আশা করবেন? রাজ্যের সব ক্ষেত্রে চুক্তিভিত্তিক কর্মী থাকায় কাজে দায়সারা মনোভাব মত প্রধান বিচারপতির।” প্রধান বিচারপতির মন্তব্য, “ই-পোর্টালে শীর্ষে রয়েছে এ বার আদালতে রাজ্য এসে বলুক। আমি বুঝিয়ে দেব।”

রাজ্যের উদ্দেশে প্রধান বিচারপতির প্রশ্ন, আপনাদের কত জন কর্মী চুক্তিভিত্তিক? উত্তর দিতে পারেননি রাজ্যের আইনজীবী। প্রধান বিচারপতির মন্তব্য, আপনার জানা উচিত ছিল। মানুষ অনেক দূর থেকে আসেন। কত কত টাকা খরচ করে তাঁরা কলকাতায় থাকেন। সব জায়গায় চুক্তিভিত্তিক কর্মীতে ভরে গিয়েছে। এসএসকেএম হাসপাতালে কত জন চুক্তি ভিত্তিক? খুব খারাপ লাগে ই-পোর্টাল না খুললে। জয়েন্ট ডাইরেক্টর আবার বলছেন ৪৭০ কার্ড পোর্টালে হয়েছে। এই সমস্যা সাধারণ। এটা ঠিক করে নেওয়া সম্ভব। কিন্তু তা না করে মানুষকে হয়রানি করা হচ্ছে।

প্রধান বিচারপতি বলেন, “রাজ্যে বিশেষ ভাবে সক্ষম ব্যক্তিদের জন্য (UDID card ) সরকারের পোর্টাল কাজ করছে না। এ নিয়ে বিরক্ত প্রকাশ করেন প্রধান বিচারপতি। এ রাজ্যে কেন আলাদা পোর্টাল? যদি সেটা হয়েও থাকে কেন্দ্রীয় পোর্টাল থেকে কেন তথ্য নেওয়া হচ্ছেনা?”

বিশেষ সক্ষম মানুষদের সুবিধার্থে ২০১৭ সালে কেন্দ্রীয় সরকার UDID card (unic disability identity card…) এর ব্যবস্থা করে। অভিযোগ, রাজ্যের মানুষ সেই কার্ড চাইলে রাজ্য আলাদা করে ICON portal খোলে। অভিযোগ যখনই সেখানে নাম নথিবদ্ধ করতে চাইছেন প্রার্থীরা তাদের নাম নথিবদ্ধ বলে দেখানো হচ্ছে। ফলে কেউ কার্ড পাচ্ছেন না। এই অভিযোগ তুলে পরিবার বেঙ্গল আদালতে মামলা করে।