Date : 2024-02-24

প্রয়াত প্রাক্তন নগরপাল তুষার তালুকদার

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক – বার্ধক্যজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন কলকাতা পুলিশের প্রাক্তন নগরপাল তুষার তালুকদার। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর। আজ দুপুর ১২ টা ২২ মিনিটে দক্ষিণ কলকাতার ঢাকুরিয়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে তিনি। দুপুরে তুষার তালুকদারের মৃত্যুর খবর আসতেই শোকের ছায়া নামে গোটা পুলিশ মহলে। মৃত্যুর খবর আসার পর থেকেই ঢাকুরিয়ার বেসরকারি হাসপাতালের সামনে ভিড় জমতে শুরু করে কলকাতা পুলিশের একাধিক উচ্চ পদস্থ আধিকারিকদের।
১৯৯২ থেকে ৯৬ সাল পর্যন্ত কলকাতা পুলিশের নগর পালের দায়িত্ব সামলে এসেছেন তুষার তালুকদার। আইপিএস মহলের একাংশের দাবী, রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুর অত্যন্ত প্রিয় মানুষ ছিলেন তুষার তালুকদার। তুষার তালুকদার নগরপাল থাকাকালীন ১৯৯৩ সালে ঘটেছিল ২১ শে জুলাইয়ের মতো ঘটনা। তিনি নগরপাল থাকতে ঘটেছিল বউবাজার বিস্ফোরণ। সব থেকে উল্লেখযোগ্য ঘটনা ঘটেছিল ১৯৯২ সালে। তা হল সত্যজিৎ রায়ের মৃত্যু। সত্যজিৎ রায়ের মরদেহ নিয়ে শ্মশানে যাওয়ার সময় ঘটে গেল এক আশ্চর্যজনক ঘটনা।

তৎকালীন কলকাতা পুলিশের নগর পালের দায়িত্ব ছিলেন আইপিএস বি কে সাহা। ঠিক সেই সময় কলকাতা পুলিশের প্রাক্তন নগরপাল বি কে সাহাকে “সাহা বাবু” বলে সবার সামনে ডেকে উঠেছিলেন কুখ্যাত এক নাম করা দুষ্কৃতী। এই কথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুর কানে যেতেই সঙ্গে সঙ্গে নগরপালের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় তাঁকে। তারপরেই সেই পদে আসেন তুষার তালুকদার কে। তাঁর আমলে শহরের বুকে ঘটে যাওয়া একাধিক জটিল তদন্তের সমাধান করেছিলেন কলকাতার প্রাক্তন এই নগরপাল। তিনি কলকাতা পুলিশকে একটি নতুন আঙ্গিকে রূপ দান করতে থাকেন। শহরকে আইনের শাসনে উত্তীর্ণ করা এবং শহরবাসীকে সুরক্ষিত রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তুষার তালুকদার। তার মৃত্যুর ঘটনার পর শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা কলকাতা পুলিশ পরিবারে।