Date : 2024-05-26

দাড়িভিট কাণ্ডে হাইকোর্টে ভার্চুয়ালি হাজিরা দিলেন মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব ও এডিজি সিআইডি।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক : আদালতের নির্দেশ মেনে সোমবার দাড়িভিট কাণ্ডে ভভার্চুয়ালি বিচারপতি রাজা শেখর মান্থার এজলাসে হাজিরা দিলেন রাজ্যের মুখ্যসচিব,স্বরাষ্ট্রসচিব ও এডিজি সিআইডি। এদিন নবান্ন থেকে তাঁরা মামলায় অংশগ্রহণ করেন। আদালতের নির্দেশ মেনে তারা NIA তদন্ত হস্তান্তরের কথা জানালেন।

রাজ্যের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে তারা মৃত ছাত্রের পরিবারকে ক্ষতিপূরণও দেওয়ার প্রক্রিয়ায় শুরু করেছে । প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে যেহেতু মামলাটি বিচারাধীন সে কারণে ডিভিশন বেঞ্চের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে জানালেন বিচারপতি রাজা শেখার মান্থা।

উপস্থিত রাজ্যের মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব ও এডিজি সিআইডি উদ্দেশ্যে বিচারপতি বলেন,
“আদালত যখন ডেকেছে চেয়ারকে সম্মান করে আদালত ডাকলে সেটা মানা উচিৎ।
দাড়িভিট মামলায়ভার্চুয়ালি হাজির হয়ে তারা জানান, বক্তব্য জানিয়ে হলফনামা তারা আদালতে জমা দিয়েছেন ।
রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত জানান আমরা সিআইডির থেকে তদন্তের নথি এনআইএর হতে হস্তান্তর করে দিয়েছি ।ক্ষতিপূরণ এর ব্যাপারে কাজ চলছে । যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সরকার ওই ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যবস্থা করছেন।

এদিন অ্যাডভোকেট জেনারেলের উদ্দেশ্যে বিচারপতি,বলেন, আদালত অবমাননার রুল ইস্যু হলে হাজির হয়ে আদালত কে জানাতে হয় ।এজি আইনটা ভালো জানেন ।আপনার চেয়ার মর্যাদাকে এভাবে অপমান করা উচিত নয়। চেয়ারকে সন্মান করা আপনাদের দায়িত্ব। কিন্ত সেই দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ।সেই কারণে আপনাকে হাজির হয়েই নিজের বক্তব্য জানাতে হবে বলেই আদালত ডেকে পাঠিয়েছে ।

আদালত যদি কাউকে ডাকে আপনাদের উচিত চেয়ার কে সম্মান করে সেটা মানা। ব্যাক্তি কে নয় চেয়ার কে প্রশ্ন করেছে আদালত। আপনি সেই চেয়ারের অধিকারী সুতরাং উত্তর আপনাকেই দিতে হতো।