Date : 2020-12-01

ফের আগুন আতঙ্কের গ্রাসে মেট্রো, ধোঁয়ায় অসুস্থ ৩ যাত্রী

কলকাতা: কখনো বহুতল কখনো মেট্রো, আগুন আতঙ্ক পিছু ছাড়ছে না শহরের। ফের দিনের ব্যস্ততম সময় মেট্রোর রেক থেকে ধোঁয়া বেরনোয় আতঙ্ক ছড়াল। বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টা নাগাদ কবি সুভাষগামী একটি মেট্রো রেকের তলা থেকে হঠাৎ ধোঁয়া বেড়তে দেখেন যাত্রীরা। ধোঁয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই রেকে থাকা ৩ জন যাত্রী। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, এদিন দমদম স্টেশন ছেড়ে মেট্রোটি বেরিয়ে যাওয়ার পরেই ৪ নং রেকের তলা থেকে ধোঁয়া বেড়তে শুরু করে। ঘটনার খবর পেতেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন যাত্রীরা। তৎক্ষণাৎ দমদম স্টেশনের অদূরেই দাঁড় করিয়ে দেওয়া হয় মেট্রো রেকটিকে। তড়িঘড়ি যাত্রীদের ট্রেন থেকে নামিয়ে আনার কাজ শুরু হয়। তবে তার মধ্যেই ভিড়, ধোঁয়া, আতঙ্কে হুড়োহুড়ি শুরু হয়ে যায় যাত্রীদের মধ্যে। অসুস্থ হয়ে পড়েন ৩ যাত্রী। তাদের মধ্যে একজন মহিলা যাত্রীকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ভর্তি করা হয় আর.জি.কর হাসপাতালে। ঘটনার জেরে অফিস টাইমে বিপর্যস্ত হয় দমদম গড়িয়াগামী মেট্রো চলাচল। যাত্রীদের কথায়, রেকটির শেষ বগিতে আগুনের ফুলকি দেখা যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমদম জিআরপি এবং সিঁথি থানার পুলিশ। বিকল রেকটিকে নিয়ে যাওয়া হয় নোয়াপাড়া কারশেডে। ঘটনার জেরে আতঙ্কিত যাত্রীরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন দমদম স্টেশনে। যাত্রীদের তরফে অভিযোগ ওঠে বিকল রেক চালানোর। সূত্রের খবর, এদিন যে রেকটিতে আগুন লাগে সেটি পুরনো ও নন-এসি রেক ছিল। অনেকদিন আগেই এই রেকগুলির জীবনকাল অতিক্রান্ত হয়ে গিয়েছে। কিন্তু পর্যাপ্ত রেক না থাকায় পুরনো রেকগুলিকেই রক্ষণাবেক্ষণ করে যাত্রী পরিষেবার কাজে ব্যবহার করছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ। প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগে ময়দানে মেট্রোতেও আগুন লেগেছিল। সেক্ষেত্রেও রেকটি ছিল বেশ পুরনো। এরপর বিকল রেকটিকে সরিয়ে সঙ্গে সঙ্গেই অন্য একটি রেক ডাউন লাইনে দেওয়া হয়। যাত্রীদের নিয়ে সেই ট্রেনটি ১১টা ১৪-তেই স্টেশন ছেড়ে বেরিয়ে যায়। সময়ের হেরফের হলেও মেট্রো চলাচলে তেমন কিছু অসুবিধা ঘটেনি বলে জানিয়েছেন মেট্রো কর্তৃপক্ষ। ময়দানের পর আরো একবার এদিন মেট্রোয় আগুন আতঙ্কের ঘটনায় নতুন করে আবার উঠে আসে পুরনো রেক চালানোর প্রসঙ্গ। যাত্রী সুরক্ষার ক্ষেত্রে আদৌ কতটা ব্যবস্থা নিয়েছে কর্তৃপক্ষ তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। মেট্রো রেলের সিপিআরও ইন্দ্রাণী বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ৪টি নতুন রেক এসে গিয়েছে।পরীক্ষামূলক ভাবে চালানোর পর অবিলম্বে সেগুলিকে যাত্রী পরিষেবার কাজে লাগানো হবে। তাই অচিরেই এই সমস্যা মিটতে চলেছে বলে জানিয়েছেন তিনি। যেহেতু রেকটি তখনো স্টেশন ছেড়ে যায়নি তাই বিকল হওয়ার পর রেক থেকে যাত্রীদের নামিয়ে আনতে অসুবিধা হয়নি বলে জানানো হয়েছে মেট্রো রেল সূত্রে।