Date : 2021-10-16

কারও সর্বনাশ কারও পৌষ মাস.. দূষণ যখন লক্ষ্মী লাভ…

নয়া দিল্লি: ওজোন স্তরে জমছে দূষণের পলেস্তর। হাঁসফাঁস করছে রাজধানী। আর এই সর্বনাশই কারোর কারোর মুখে ফোটাচ্ছে হাসি। দিল্লির ভয়ঙ্কর বায়ুদূষণ জন্ম দিচ্ছে নতুন নতুন ব্যবসার। এবার দিল্লির বায়ুদুষণের হাত থেকে মুক্তি পেতে উপায় বাতলে দিচ্ছেন দিল্লি আইআইটির কয়েকজন প্রাক্তন ছাত্র ও তাঁদের অধ্যাপকরা। রাস্তাঘাটে দূষিত বাতাস আটকাতে নাক ঢাকা মুখোশ প্রথম চালু হয়েছিল ট্রাফিক পুলিশদের জন্য। তবে বায়ুদূষণের মাত্রা ক্রমেই বেড়ে চলাতে তা ব্যবহার করতে শুরু করেন সাধারণ মানুষও। ফলে মুখোশ ব্যবসায়ীদের সোনায় সোহাগা। ১০ টাকার দিলেই পাওয়া যাবে এই নাক ঢাকা মাস্ক। কিন্তুু তাতে কি সম্পূর্ণ বায়ুদূষণের হাত থেকে মুক্তি পায় সাধারণ মানুষ? আর এই রিসার্চের মধ্যে থেকেই আইআইটির প্রাক্তন ছাত্ররা এবং তাঁদের অধ্যাপকরা বাজারে নিয়ে এল ‘ন্যাজাল ফিল্টার’। মাত্র ২ সেন্টিমিটার মাপের এই ফিল্টার অনায়াসে নাকের মধ্যে ঢুকিয়ে দেওয়া যায়। এতে স্বাভাবিক ভাবেই নেওয়া যাবে শ্বাস-প্রশ্বাস। অথচ নাকে ঢুকবেনা বাতাসের দূষিত ধুলিকণা। গত বছর এই ন্যাজাল ফিল্টারের উদ্ভাবকরা রাষ্ট্রপতি পুরস্কারে সন্মানিত হয়েছিলেন। বর্তমানে এই ন্যাজাল ফিল্টার পাওয়া যাচ্ছে যেকোনও ওষুধের দোকানে। সেই সঙ্গে অনলাইনে সার্চ করলেও পাবেন এই ন্যাজাল ফিল্টার। তাই বলা যেতেই পারে, রাজধানীতে দূষণই কি দেখাচ্ছে বানিজ্যের নতুন আলো?