Date : 2020-10-30

“নোটবন্দী ভুল সিদ্ধান্ত ছিল, স্বীকার করুন মোদী…”

ওয়েব ডেস্ক: ব্রিগেডের মঞ্চ থেকে ১৯-এ ধর্মনিরপেক্ষ সরকার গড়ার ডাক দিলেন প্রাক্তন সাংসদ ও মিজোরাম ন্যাশানালিস্ট পার্টির নেতা লালডুহোমা। তিনি বলেন, “ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করছে বিজেপি। সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে লড়তে হবে। দেশে নতুন ইতিহাস তৈরী হবে।” অন্যদিকে মঞ্চে উঠেই নরেন্দ্র মোদীকে একহাত নিলেন রাষ্ট্রীয় লোকদল নেতা জয়ন্ত চৌধুরি। তিনি বলেন, “মঞ্চে একজোট, দেশ এটাই চাইছিল। সুদিন ফেরাতে মোদীকে ভাগাতে হবে। বাংলায় যা হচ্ছে দেশের শেখা উচিত। নোটবন্দী ভুল সিদ্ধান্ত ছিল,স্বীকার করুন মোদী। ” এদিকে প্রাক্তন মন্ত্রী যশবন্ত সিনহা বলেন,” এটা কোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধে লড়াই নয়। ৫৬ মাসে দেশের গণতন্ত্র ক্ষতিগ্রস্ত। বিরোধীতা করলেই দেশদ্রোহী বলা হচ্ছে। গণতন্ত্র রক্ষা করতেই একজোট হয়েছি।” আজ ২০ টি রাজনৈতিক দলের মহাসমাবেশে জনতার প্লাবন শহরে। সকাল থেকে লক্ষ লক্ষ মানুষ ব্রিগেডমুখী। একই মঞ্চে একদিকে যেমন কংগ্রেসের প্রতিনিধি মল্লিকা অর্ডুন খাড়গে, অভিষেক মনু সিং ভি রয়েছেন ঠিক তেমনই থাকবেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী দেবেগৌরা, ফারুক আবদুল্লা, চন্দ্রবাবু নাইডু, অখিলেশ যাদব। রয়েছেন বিজেপি বিরোধি শিবিরের কেন্দ্রস্তরীয় নেতৃবর্গ। মমতার ঐক্যবদ্ধ ভারত স্লোগানকে সমর্থন করে জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতি রাহল গান্ধীর চিঠিতে বার্তা দিয়েছেন, আগামী দিনে দেশ গঠনে বাংলাই নেতৃত্ব দেবে।