Date : 2020-10-23

সপা-বসপা জোটকে স্বাগত জানিয়ে ট্যুইট বার্তা মমতার…

কলকাতা: আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি বিরোধী জোট গড়ে তুলতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সারা দেশের সমস্ত বিজেপি বিরোধী সংগঠনকে এক মঞ্চে একত্রিত হওয়ার ডাক দেন। এই মর্মে দীর্ঘদিন ধরেই বিজেপি বিরোধী জোট গঠন করতে প্রধান ভূমিকা নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দিল্লি গিয়ে একাধিকবার কংগ্রেস সহ বিজেপি বিরোধী জাতীয় স্তরের নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকও করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর আহ্বানে সাড়া দিয়ে নবান্নে টিআরএস প্রধান চন্দ্রবাবু নাইডু সহ বিভিন্ন রাজ্যের নেতারাও এসেছেন কেন্দ্রে বিজেপি বিরোধী জোটের ভিতকে মজবুত করে তোলার লক্ষ্যে। লোকসভা নির্বাচন এগিয়ে আসায় তৎপরতা ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে বিজেপি বিরোধী জোট শিবিরে। কর্ণাটক বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশিত হওয়ার পর কংগ্রেস এবং জেডিএসের জোট হয়। বিজেপিকে রুখতে অনেক বেশি আসন পেয়েও জোট সঙ্গীকেই মুখ্যমন্ত্রী পদ ছেড়ে দেয় কংগ্রেস নেতৃত্ব। কর্ণাটকে নতুন সরকারের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধীর সঙ্গে উপস্থিত থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপি বিরোধী জোট গড়ে তোলার বার্তা দেন। নোট বাতিলের মতো পদক্ষেপের সঙ্গে লড়াই করতে গিয়ে নাভিশ্বাস উঠেছে মানুষের, সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলিকেও দুর্বল করে দিয়েছে বিজেপি, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যে জিএসটি চালু, অসমে এনআরসি চালু, সংরক্ষণ বিল, পেট্রোপন্যের মূল্যবৃদ্ধি সহ একাধিক ইস্যুকে সামনে রেখে বিজেপি বিরোধী আঞ্চলিক দলগুলিকে নিয়ে ফেডেরাল ফ্রন্ট গঠন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। এদিকে মোদী সরকারকে হটাতে মরিয়া হয়ে ওঠেন শরদ পাওয়ার, মায়াবতী, অখিলেশ, কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের মতো নেতারাও। মায়াবতী, অখিলেশদের জোটের পাশে আগেই দাঁড়িয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক করে আনুষ্ঠানিকভাবে সপা ও বসপা প্রধান অখিলেশ যাদব ও মায়াবতী আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে জোটবদ্ধ ভাবে লড়াই করার সিদ্ধান্ত জানান। পাশাপাশি ৩৮ টি করে আসনে তারা প্রার্থী দেবেন বলে জানিয়েছেন। শনিবার সপা ও বসপা জোটকে স্বাগত জানিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করেন।