Date : 2019-07-23

রাস্তা মেরামতিতে এবার আসছে নতুন প্রযুক্তি ব্যাচ মিক্স

কলকাতা: কলকাতার বাতাসে অনেকদিন ধরেই বিষ ছড়িয়ে পড়েছে যানবাহন ও কলকারখানার দূষণে। বায়ুদূষণের ক্ষেত্রে কলকাতা অনেক সময়ই দিল্লিকে টেক্কা দেয়। এই অবস্থায় অনেকদিন ধরেই কলকাতা পুরসভাকে রাস্তা তৈরীর কাজে হট মিক্স প্রযুক্তি বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় পরিবেশ আদালত। সেই প্রেক্ষিতেই পরিবেশকর্মীরা আদালতে বক্তব্য পেশ করে বলেন, হট মিক্সে বেশি খরচ হওয়া সত্ত্বেও কলকাতা পুরসভা কেন কোল্ড মিক্স বা মাইক্রো সারফেসিং পদ্ধতিতে রাস্তা সারাইয়ে আগ্রহ প্রকাশ করছে না। এরপরেই কলকাতা পুরসভা এই প্রযুক্তির ব্যবহার বন্ধ করে পরিবেশ বান্ধব ব্যাচ মিক্সের মাধ্যমে রাস্তা তৈরীর পরিকল্পনা গ্রহণ করে। অন্যদিকে মেয়র পরিষদ সড়ক রতন দে জানান, ইতিমধ্যে কলকাতার আমার বাজার ও ঘোড়াগাছা যে দুটি হট মিক্স রয়েছে সেগুলি কেও পরিবেশবান্ধব করা হয়েছে। চলতি বছরের এপ্রিল মাসেই পলিউশন কন্ট্রোল বোর্ডের ছাড়পত্র পেলে সেই সার্টিফিকেট নিয়ে কোর্টের দ্বারস্থ হবে কলকাতা পুরসভা।

আজ মেয়র কমিশনার ও মেয়র পরিষদ সড়ক ও পুরসভার আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতা পুরসভা। পরিবেশকর্মী সুভাষ দত্তের মামলার পরিপ্রেক্ষিতে পরিবেশ আদালতের পূর্বাঞ্চলীয় বেঞ্চ কলকাতায় হট মিক্স প্রযুক্তি ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। কিন্তু তার ফলে শহরে রাস্তা মেরামতিতে সমস্যা হচ্ছে, এই দাবি তুলে পরিবেশ আদালতের প্রিন্সিপাল বেঞ্চে কলকাতা পুরসভা ও রাজ্য সরকার আবেদন করেছিল। তার শুনানিতে বিচারপতি এসপি ওয়াংদি ও বিচারপতি কে রামকৃষ্ণণ এবং বিশেষজ্ঞ সদস্য নাগিন নন্দার প্রিন্সিপাল বেঞ্চের কাছে রাজ্যের পক্ষ থেকে প্রযুক্তিতে বদল আনতে ছ’মাস সময় চাওয়া হয়। কিন্তু আদালত সূত্রের খবর, বিরক্তি প্রকাশ করে প্রিন্সিপাল বেঞ্চ জানতে চায়, এক বছর আগে হট মিক্স প্লান্ট বন্ধের নির্দেশ জারি করা হয়। এই সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতেই শিরকলে পি.ডাব্লু.ডি-র জায়গায় তৈরি হবে নতুন ব্যাচ মিক্স প্রকল্প। তবে পলিউশন কন্ট্রোল বোর্ডের তরফে ইনস্পেকশনের পরেই জানা যাবে কলকাতা পুরসভার হট মিক্স কেন্দ্র দুটি পরিবেশবান্ধব হয়েছে কিনা।