Date : 2020-10-31

নামছে পারদ, জোর কদমে সাগর স্নানের প্রস্তুতি রাজ্যের…

কলকাতা: কথায় আছে, “সব তীর্থ বার বার, গঙ্গাসাগর একবার”। তাই প্রতিবছরই মকর সংক্রান্তি উপলক্ষ্যে সাগরসঙ্গমে পুণ্যস্নানে অংশ নিতে কপিল মুনির দর্শনের জন্য রাজ্যে লক্ষ লক্ষ পুর্ণার্থীর ঢল নামে। এই পুণ্যার্থীদের অধিকাংশই আসেন ভিন রাজ্য থেকে, তাই প্রতিবছরের মতো এই বছরও সংক্রান্তি উপলক্ষ্যে গঙ্গাসাগরে বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে রাজ্য সরকারের তরফে বিশেষ কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে। গত ৫ জানুয়ারি রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গঙ্গাসাগর মেলা নিয়ে ডায়মন্ড হারবারে বিশেষ প্রশাসনিক বৈঠক করেন। সরকারি হিসাবে প্রতি বছর ১৪ লক্ষের বেশি পুণ্যার্থীর সমাগম হয় সাগরমেলায়। তাই মানুষের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে গোটা অঞ্চলকে মুড়ে ফেলা হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরায়। ইতিমধ্যে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং বিদ্যুৎ মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় মেলার প্রস্তুতি খতিয়ে দেখার জন্য গঙ্গাসাগর পরিদর্শনে গিয়েছেন। পুণ্যার্থীরা যাতে নিশ্চিন্তে গঙ্গাসাগরে বিশ্রাম নিতে পারেন তার জন্য কলকাতার বাবুঘাটে অস্থায়ী তাবুর ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার। সেখানে প্রতিদিন প্রাতঃরাশ থেকে শুরু করে মধ্যাহ্ন ভোজের ঢালাও বন্দোবস্ত করা হয়েছে। গঙ্গাসাগর মেলায় আগত পুণ্যারর্থীরা যাতে সুষ্ঠ ভাবে মেলায় পৌঁছে যেতে পারেন তার জন্য অতিরিক্ত বাস পরিষেবা থাকছে । মেলা প্রাঙ্গন পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য ১০ হাজার অতিরিক্ত শৌচাগার, অনেক সিভিক ভলেন্টিয়ার ও স্থানীয় যুবকদের ভলেন্টিয়ার হিসেবে মেলায় মোতায়েন করা হয়েছে। বিপর্যয় এড়াতে থাকছে রাজ্য সরকারের বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের বিশেষ দল ও ডুবুরি। প্রতিবছর এই মেলার আয়োজন করে রাজ্য জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি বিভাগ। মেলা সম্পর্কিত তথ্য সম্বলিত বিভিন্ন ভাষায় লিফলেট বিলি করা হচ্ছে মানুষকে অবগত করার জন্য। তাছাড়াও মেলা চলাকালীন যাতে কোন রকম বিদ্যুৎ বিপর্যয় না ঘটে তার জন্য বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করার ব্যবস্থা গ্রহণ হয়েছে। তবে মেলা উপলক্ষ্যে আগত অসংখ্য দর্শণার্থীদের সামলাতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে পুলিশ প্রশাসনকে। বিপুল সংখ্যক পুর্ণার্থী ইতিমধ্যে শহরে পৌঁছে যাওয়ায় তাদের ভিড়ে কলকাতায় ও হাওড়ায় ব্যাপক যানজট সৃষ্টি হয়েছে। ফলে শহরের বেশ কিছু অঞ্চলে ট্রাফিকের গতি বেশ শ্লথ। এদিকে মকর সংক্রান্তির আগে আবারও নামতে চলেছে রাজ্যের তাপমাত্রার পারদ। বিগত বেশ কিছুদিন ধরে শহরের বুকে জাঁকিয়ে বসেছে শীত। তাপমাত্রা ঘোরা ফেরা করছে ১২ ডিগ্রির আসে পাশে। আগামী দু দিনে রাজ্য সহ দক্ষিণবঙ্গে তাপমাত্রা আরও কয়েক ডিগ্রি নেমে ১১ ডিগ্রিতে পৌঁছানোর কথা জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। তাই মকর স্নানের আগে ভিন রাজ্যের পুণ্যার্থীরা শীত উপভোগ করতে পারবেন