Date : 2020-10-24

ককপিটে ধুমপানই ডেকে এনেছিল মৃত্যু

ওয়েব ডেস্ক: মাঝ আকাশে হঠাৎই ধুমপানের ইচ্ছে। আর সেটাই ছিল ৫১ জন মানুষের মৃত্যুর কারণ। গত বছর ১২ মার্চ ঢাকা থেকে কাঠমান্ডুগামী একটি বিমান নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে অবরতণ করার সময় ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। সম্প্রতি ওই দুর্ঘটনার তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ করেছে নেপালের অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রক। ককপিট ভয়েস রেকর্ডারের তথ্য বিশ্লেষণ করতে গিয়ে দুর্ঘটনার তদন্তে গঠিত কমিশনের হাতে এসেছে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। তদন্তে উঠে এসেছে দুর্ঘটনার আগে বিমানের প্রধান চালক ধুমপান করেছিলেন। যা ককপিট সহ বিমানে কঠোরভাবে নিষিদ্ধ। ধুমপানের সময়ে চালকের মনসংযোগ বিঘ্নিত হয়। ফলে দুর্ঘটনার সময় পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হন তিনি। তদন্তে গঠিত অ্যক্সিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন কমিশন এমনটাই মনে করছে। প্রসঙ্গত, নেপালের ত্র‌িভূবন এয়ারপোর্টে অবতরনের সময়ই বিমানটিতে আগুন ধরে যায়৷ বিমানটিতে ৬৭ জন যাত্রী ছিলেন৷ তার মধ্যে ৫১ জনের মৃত্যু হয়৷ ভেঙে পড়ার সময় বিমানটিতে আগুন ধরে যায়৷ প্রায় সকলেরই পুড়ে মৃত্যু হয়৷