Date : 2020-10-26

শহরে একাধিক পথ দুর্ঘটনা, মৃত্যু দুই ব্যক্তির

কলকাতা: একই দিনে শহরের বুকে পরপর চারটি পথ দুর্ঘটনা ঘটল। বৃহস্পতিবার রাত থেকে শহরে পথ দুর্ঘটনা ঘটে চলেছে, ট্যংরা, পশ্চিম বন্দর, কালীঘাট ও হেস্টিংস থানা অঞ্চলে। এই ঘটনায় এখনো পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে দু’জনের। জখম হয়েছে আরও দুই ব্যক্তি। পুলিশ সূত্রের খবর, শুক্রবার ভোর রাতে কালীঘাট অঞ্চলে গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ হারায় চেতলার বাসিন্দা বছর (৫৫) প্রৌঢ়া রীতা পাল। ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। পরের দুর্ঘটনাটি ঘটে এইদিনই সকাল পৌন ৬টা নাগাদ। বিদ্যাসাগর সেতুর উপরে একটি পণ্যবাহী গাড়ি উল্টে গেলে তার চালক বীরেন্দ্র সিংহ গুরুতর জখম হন। তাকে উদ্ধার করেও প্রথমে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তার পরিবারের সদস্যেরা অন্যত্র নিয়ে গিয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। এছাড়া, অন্য দুটি ঘটনা ঘটে বৃহস্পতিবার রাতে। ট্যাংরা থানা এলাকায় রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ অটো উল্টে মৃত্যু হয়েছে এক যাত্রীর। গোবিন্দ খটিক রোড ধরে রামপ্রসাদ মৌলিক (৫৪) নামে এক যাত্রীকে নিয়ে অটো চালিয়ে যাচ্ছিলেন চালক। পথের মাঝে হঠাৎ করে কুকুর চলে আসায় তাকে বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায় অটোটি। ঘটনার জেরে তার শরীরের একাধিক জায়গায় আঘাত লাগে। রামপ্রসাদবাবুকে উদ্ধার করে নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়। ওই দিন রাতেই অপর একটি দুর্ঘটনা ঘটে হাইড রোডের উপরে পশ্চিম বন্দর থানা এলাকায়। সূত্রের খবর রাত পৌনে ১২টা নাগাদ দক্ষিণমুখী একটি ট্রেকারের সঙ্গে বিপরীত অভিমুখে ধাক্কা লাগে বাইকের। ঘটনাস্থলে খিদিরপুর বাবুবাজারের বাসিন্দা সঞ্জয় গুপ্ত নামে বাইক আরোহী ছিটকে পড়ে যান। হেলমেট না থাকায় মাথায় চোট লাগে তার। বাইক আরোহীকে প্রথমে এসএসকেএম হাসপাতাল ও পরে স্থানীয় বেসরকারী হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। ঘটনায় আহত ব্যক্তি আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।