Date : 2019-08-26

শান্তিপুরে মদের আসরে আক্রান্ত প্রতিবাদী যুবক

নদিয়া: ফের মদ্যপ যুবকের হাতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল প্রতিবাদীর। বাড়ির সামনে নিত্যদিন মদের আসর বসিয়ে হৈ চৈ করার প্রতিবাদ করায় যুবককে খুন হতে হল মদ্যপদের হাতে। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার শান্তিপুর থানার বাগআচড়া অঞ্চলে। সূত্রের খবর, শান্তিপুরের বাগআচড়া পঞ্চায়েতের লহ্মীনাথ পুরের বাসিন্দা বাপন মন্ডলের বাড়ির সামনে বেশ কিছুদিন ধরে সন্দীপ প্রামানিক নামে স্থানীয় এক যুবক তার সঙ্গীসাথীদের নিয়ে মদের আসর বসাতে শুরু করেছিলেন। পেশায় তাঁত ব্যবসায়ী বাপন মন্ডল বহুবার নিষেধ করা পরেও সন্দীপ ও তার সঙ্গীরা কর্ণপাত করেনি। অভিযোগ, ঘটনার দিনও রাতে বাপন মন্ডলের বাড়ির থেকে সামান্য কিছুটা দূরে মদের আসর বসিয়েছিল সন্দীপ প্রামানিক। রাত ৯ টা নাগাদ বাপনের খুড়তুতো ভাই ছোটন মন্ডল বাড়ি ফেরার পথে আক্রান্ত হয়ে মদ্যপ সন্দীপ ও তার বন্ধুদের হাতে। প্রকাশ্যে মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় ছোটন মন্ডলকে মারধর করে আসরে উপস্থিত মদ্যপ যুবকরা। ভেঙে দেওয়া হয় তার মোটরবাইক। এই ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে আক্রান্ত হয় প্রতিবাদী বাপন মন্ডল। মদ্যপ সন্দীপ ও তার সঙ্গীরা বাপনকে ব্যপক মারধর করে। ঘটনার জেরে তার মাথায় গুরুতর আঘাত লাগে। ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়ে বাপন মন্ডল এরপর স্থানীয় বাসিন্দারা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে শান্তিপুর হাসপাতাল ও পরে কলকাতা পিজি হাসপাতালে নিয়ে আসে চিকিৎসার জন্য। কিন্তু আঘাত এতই গুরুতর ছিল যে  বৃহস্পতিবার রাতেই পিজি হাসপাতালে মৃত্যু হয় বাপন মন্ডলের। ঘটনার পর থেকেই এলাকা থেকে চম্পট দিয়েছে সন্দীপ প্রামানিক ও তার সঙ্গীরা। বাপনের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ হয়ে গেছে গোটা পরিবার। তবে পরিবারের তরফে অভিযোগ উঠছে শান্তিপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলেও এখনো পর্যন্ত ঘটনায় অভিযুক্ত একজনকেও গ্রেফতার করেনি পুলিশ।