Date : 2020-10-26

শুরু হল বিশ্ববঙ্গ বানিজ্য সম্মেলন ২০১৯, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে বিনিয়োগের আশা

কলকাতা: দেশ বিদেশের শিল্প সংস্থাগুলিকে পশ্চিমবঙ্গে বিনিয়োগের জন্য উৎসাহিত করে তুলতে পঞ্চম বিশ্ব বাংলা বানিজ্য সম্মেলনের উদ্বোধন করল রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার রাজারহাটে মুখ্যমন্ত্রী এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন। সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দেশ বিদেশের প্রায় পাঁচ হাজার নাম করা বানিজ্য সংস্থার প্রতিনিধিরা। রাজ্য সরকারের লক্ষ্য রাজ্যে আরো বেশি শিল্প বান্ধব পরিবেশ গড়ে তুলতে হবে। ফলে রাজ্যে আরো কর্ম সংস্থান বাড়বে বলে আশা করছে রাজ্য সরকার।

বৃহস্পতিবার বেঙ্গল বিজনেস সামিটের মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী বার বার এই বার্তাই দিয়েছেন। তিনি বলেন, “রাজ্য ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে অনেকটা এগিয়ে আছে। এখানে কর্মদিবস নষ্টের সংস্কৃতি নেই। ভারতের শিল্প উন্নয়নের হারে এগিয়ে বাংলা। এমনকি গ্রাম সড়ক ও গ্রামোন্নয়নের বিষয়ে সারা দেশের মধ্যে একমাত্র বাংলা এগিয়ে”। এদিন বিসনেস সামিটের মঞ্চ থেকে মার্কিন, জার্মান ও ব্রিটিশ লগ্নি সংস্থাগুলিকে রাজ্যে বিনিয়োগের জন্য আহ্বান করেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিনের সম্মেলনে উপস্থিত ছিল, ইতালি, জার্মানি, ফ্রান্স, ইংল্যান্ড, পোল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, জাপান, পর্তুগাল, ফিনল্যান্ড, লুক্সেমবার্গ, বাংলাদেশ সহ মোট ২৬ টি দেশ থেকে আগত বিশেষ বানিজ্য প্রতিনিধি দল। এছাড়া চীন থেকেও এসেছিল বানিজ্য সংক্রান্ত উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল।

এছাড়া এদিনের সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন মুকেশ আম্বানি, সজ্জন জিন্দাল সহ বেশ কয়েকজন নামকরা দেশীয় শিল্পপতিরা। রিলায়েন্স সংস্থার তরফে এদিন ১০ কোটি তাকা ইনভেস্ট করা হয়। তবে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে শিল্প ও বানিজ্যমন্ত্রী সুরেশ প্রভু এদিনের বিশ্ববঙ্গ বানিজ্য সম্মেলনে অনুপস্থিত ছিলেন। তিনি ভিডিও-র মাধ্যমে শুভেচ্ছা পাঠিয়েছেন। লোকসভা ভোটের কারণে অনেকটাই সংক্ষিপ্ত হয়েছে এবারের পঞ্চম বিশ্ববঙ্গ বানিজ্য সম্মেলন। বৃহৎ শিল্পের থেকেও বেশি নজর দেওয়া হয়েছে ছোট ও মাঝারি শিল্পে। ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের বিনিয়োগকারিদের উৎসাহ দিতে বিশেষ অ্যাপের উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফাইল নিয়ে দফতরে দফতরে না ঘুরে অ্যাপের মাধ্যমেই মিলবে সমস্যার সমাধান। এর পাশাপাশি খাদির বিপণনেও বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে। ই-কমার্সের দুনিয়ায় প্রবেশ করছে খাদি বোর্ড। শিল্প সম্মেলনে সেই প্রকল্পেরও উদ্বোধন হয়। গত চারবারের মতো এবারের সম্মেলনেও বিনিয়োগে ভাল সাড়া মিলবে বলে আশা রাজ্যের। সূত্রের খবর, কেন্দ্রের তুলনায় ১৯৪ শতাংশ বৃদ্ধি নিয়ে এদিন বিশ্ববঙ্গ বানিজ্য সম্মেলন করল রাজ্য সরকার। বাকি চারটি সম্মেলনের থেকে এই সম্মেলনে কতটা বিনিয়োগ টানতে পারে রাজ্য সেই আশায় এখন প্রহর গুনবে রাজ্য সরকার।