Date : 2020-12-03

ট্রায়াল চলাকালীন দিল্লিতে প্রাক্তন ক্রিকেটার নিগৃহীত

ওয়েব ডেস্ক: টুর্নামেন্টের জন্য ট্রায়াল দিতে এসে সুযোগ না মেলায় নির্বাচক কমিটির প্রধান তথা ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন খেলোয়ার অমিত ভান্ডারীরে মারধরের অভিযোগ উঠল এক অংশগ্রহনকারীর বিরুদ্ধে। সোমবার দিল্লির স্টিফেন গ্রাউন্ডে সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফির জন্য অনূর্ধ্ব ২৩ দলের ট্রায়াল চলাকালীন অনুজ দেধা নামে একজন ক্রিকেটার তার দলবল নিয়ে এসে অমিত ভান্ডারীকে আক্রমন করে। পুলিশ সূত্রে খবর, ট্রায়ালে সুযোগ না মেলায় অমিতকে প্রথমে চড় মারেন অনুর্ধ ২৩ এই ক্রিকেটার। এরপর জনা ১০-১৫ দুষ্কৃতী চড়াও হয়ে বেধড়ক মারধর করে জাতীয় দলের প্রাক্তন ক্রিকেটারকে।

ঘটনার পর অভিযোগ দায়ের করা হয় থানায় এবং অভিযুক্ত অনুজ দেধা ও তার ভাই নরেশকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ঘটনায় ডিডিসিএ-র আধিকারিক রজত শর্মা জানান, “ঘটনায় অমিত ভান্ডারী বেশ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। তিনি এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তবে দোষীদের গ্রেফতার করেছে পুলিশ অবশ্যই তাদের উপযুক্ত শাস্তি হবে”। সূত্রের খবর, ২০১৮ নভেম্বরে ৭৯ জনের প্রাথমিক তালিকায় নাম ছিল অনুজ দেধা নামে অভিযুক্ত ক্রিকেটারের। কিন্তু সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফির জন্য চূড়ান্ত বাছাই পর্বের তার নাম না আসায় সে এমন কান্ড ঘটায় বলে অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনার জেরে তীব্র নিন্দার ঝড় ওঠে ভারতীয় ক্রিকেট মহলে। অমিত ভান্ডারীর সতীর্থ ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর অভিযুক্ত অনুজ দেধারকে ক্রিকেট জগৎ থেকে আজীবন নির্বাসনের কথা জানিয়ে ট্যুইট করেন। ঘটনার জেরে বীরেন্দ্র সেওবাগ সহ একাধিক বিশিষ্ট ক্রিকেটাররা ট্যুইট করে অভিযুক্ত অনুর্ধ ২৩ ক্রিকেটারের কড়া শাস্তি দাবি করেছেন।