Date : 2020-10-26

যান-যন্ত্রণার ফাঁসেই এক টুকরো বাগান বুনছে বেহালা

কলকাতা: একদিকে মেট্রোর রেলের কাজ, অন্যদিকে মাঝেরহাট উড়ালপুল বিপর্যয়, জোড়া ফলায় বিদ্ধ হয়ে বেশ কিছুদিন ধরে বেহালার মানুষের নাজেহাল দশা। নিউ আলিপুর থেকে বেইলি ব্রিজ তৈরি ও মাঝের হাট সেতুর কাজ যুদ্ধকালীন তৎপরতায় এগোনোর ফলে ধীরে ধীরে বেহালা বেহাল দশা কাটিয়ে ছন্দে ফিরতে শুরু করেছে। মেট্রো প্রকল্পের কাজও প্রায় শেষ পর্যায়। তারাতলা থেকে সখের বাজার পর্যন্ত মেট্রো ফ্লাইওভারকে সাজিয়ে তুলতে রাজ্য বন দফতর বিশেষ উদ্যোগ গ্রহন করেছে।

শহরে সবুজায়নে উদ্দেশ্যে বেহালা মেট্রো ব্রিজের নিচে ঘাসের উপর বিভিন্ন ধরনের মডেল বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। এর ফলে এলাকার পরিবেশ ক্রমশ দৃষ্টি নন্দন হবে বলে মনে করছে রাজ্য বন দফতর। রাস্তার দু ধারে সারা দিন ধরে চলে অসংখ্য গাড়ি, ধোঁয়াটে বাতাসের মধ্যে রাজ্য বন দফতরের এই সৌন্দর্য্যায়ন এলাকার শোভা বৃদ্ধিতে কার্যকারী ভূমিকা নিয়েছে। এদিকে কলকাতা পুরসভার তরফে শহরের বিভিন্ন পার্কগুলিকে সুন্দর ভাবে সাজিয়ে তেলার কাজ চলছে।

বেশ কয়েক বছর আগে শহরে পার্কগুলির সবুজায়নের বিষয় নজরে আসত না কারোর। কিন্তু কলকাতা পুরসভা ও রাজ্য বনদফতরের উদ্যোগে বছর কয়েক ধরেই নিখুঁত ভাবে শহরকে সাজিয়ে তোলার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। নিউটাউন, রাজারহাট ও সল্টলেকের বেশকিছু জায়গা ইতিমধ্যে ঢেলে সাজাতে শুরু করেছে রাজ্য বন দফতর ও কলকাতা পুরসভা। সেভাবেই দক্ষিণ শহরতলির বেশ কিছু জায়গায় সৌন্দর্য্যায়নের উদ্যোগ নিতে শুরু করেছে রাজ্য। শুধু গাছ নয়, রাস্তার ধারে এক থেকে দেড় কিলোমিটার অন্তর বসানো হয়েছে ফেংসুই। রাজ্য বন দফতরের অভিনব এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন এলাকার মানুষ। তারাতলা থেকে সখেরবাজার পর্যন্ত রাস্তা এখন পথ চলতি শহরবাসীর চোখ সার্থক করছে।