Date : 2020-10-26

সপ্তাহের শেষে ভেজা ছাতায় কাটবে বাঙালির ভ্যালেন্টাইন্স ডে!

কলকাতা: শহরে শীতের প্রায় শেষ প্রহর। অল্প অল্প করে বাড়তে শুরু করেছে তাপমাত্রার পারদ। পথের ধারে রুদ্র পলাশের চূড়ায় আগুন রাঙা ফুল উঁকি ঝুঁকি দিয়ে জানিয়ে যাচ্ছে বসন্ত এসে গেছে। তবে একা বসন্ত নয়, ভ্যালেন্টান্স ডে-এর প্রেমিক যুগলের মতো এবার তার সঙ্গী হতে চলেছে বৃষ্টি। জল ভরা কালো মেঘ আর মুখ ভার করা আকাশের দিকে তাকিয়ে এবার বাঙালির পয়লা ফাল্গুন কাটতে পারে গরম কফি কাপে চুমুক দিয়ে। একদিকে বসন্তের আগমন অন্যদিকে শ্রী পঞ্চমীর তোড়জোড়, সব মিলে বাঙালির মনে প্রাণে যখন পূর্ণ প্রেমের ছোঁয়া তখনই আগামী ২৪ ঘন্টায় শহর ও শহরতলির বেশ কিছু জায়গায় বৃষ্টির সম্ভবনার কথা শোনালো হাওয়া অফিস। বৃষ্টি হতে পারে উত্তরবঙ্গের বেশ কিছু জেলাতেও। ফলে সরস্বতী পুজোয় ভিজে থাকতে পারে পার্কের বেঞ্চগুলি। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে ক্রমশ কলকাতা ও দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলাতে চড়তে শুরু করেছে তাপমাত্রার পারদ। ফলে বাতাসে জলীয় বাষ্প ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৬.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৮.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের চেয়ে ১ ডিগ্রি বেশি। এর জেরেই কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি হতে পারে। তবে বৃষ্টি হলে ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহেও ফের তাপমাত্রার পারদ নামতে পারে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। দক্ষিণবঙ্গের চেয়ে বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে উত্তরবঙ্গে তরাই অঞ্চলে অর্থাৎ দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, শিলিগুড়ি এবং কোচবিহারে। বৃহস্পতিবার থেকেই উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টি শুরু হবে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। তাই ছাতা হাতে ভেজা আঁচলে রাজ কাপুরব ও নার্গিসের আদলে এবছরের প্রেম দিবসে নিভৃতে দেখা যেতে পারে বাঙালি যুগলদের।