Date : 2019-08-26

সায়েন্স সিটিতে শুরু হচ্ছে ফুলডোম থ্রি ডি ডিজিটাল থিয়েটার

ওয়েব ডেস্ক: প্রযুক্তির অদল-বদল করে আরও আধুনিক আকারে চালু হতে চলেছে সায়েন্স সিটির ‘ফুলডোম থ্রি ডি ডিজিটাল থিয়েটার’। চোখ ধাঁধানো ছবি ও প্রযুক্তি নিয়ে শহরবাসীকে অন্যন্য সুন্দর প্রযুক্তির কোরামতি উপহার দিতে চলেছে সাইন্স সিটি। কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রী মহেশ শর্মা সায়েন্স সিটিতে থ্রি ডি থিয়েটারের উদ্বোধন করেন। প্রদর্শনীর প্রথম দিন থাকছে মাত্র দুটি ছবি।

মোট ৬টি প্রজেক্টরে টু ডি ও থ্রি ডি ফিল্ম দেখানো হবে। এর সঙ্গে বিশেষ ধরনের পাওয়ার ডোম সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়েছে। জার্মানির একটি সংস্থাকে এই নতুন প্রযুক্তি বসানোর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। এদিন এই নতুন প্রযুক্তিতে যে ছবি দেখানো হল, তা মুগ্ধ করে দেওয়ার মতো।

আপাতত সায়েন্স সিটিতে গেলে যে দুটি ফিল্ম দেখা যাবে সেগুলি হল, দি লাইফ অব ট্রিজ এবং অ্যাস্টেরয়েড, মিশন এক্সট্রিম। ৩০ -৩৫ মিনিটে ছবি দুটি দেখতে হবে চোখে চশমা পরে। চশমার মধ্যেই আছে যত কেরামতি। বৃষ্টির ফোটা যেন গায়ে পড়বে। কীট পতঙ্গ উড়ে এসে বসবে আপনার গায়ে, বাস্তবে নয় কিন্তু সবই আসলে থ্রি ডি-এর কামাল। টিকিটের দাম মাত্র ১২০ টাকা।

সায়েন্স সিটির অধিকর্তা শুভব্রত চৌধুরী বলেন, “আগে আমরা বছরে দু’টি ছবি প্রদর্শন করতে পারতাম। কিন্তু এখন রোজ দু’টি করে ছবি দেখাতে পারবে দর্শকরা। আগামীদিনে এর সংখ্যা বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে। ইংরেজি, বাংলা ও হিন্দিতে যাতে দেখানো যায় তার চেষ্টাও চলছে।” তবে সাবধান, থ্রি ডি চশমা দেখতে গিয়ে ভেঙে ফেললে ৪ হাজার টাকা জরিমানা অপেক্ষা করবে আপনার জন্য।