Date : 2019-11-18

বেশীদিন বাঁচতে চান? মেনুতে রাখুন এই খাবার…

ওয়েব ডেস্ক: বেশিদিন বাঁচতে চান? নিয়ম মেনে খাওয়া-দাওয়া থেকে ব্যায়াম সবই করেন।

কিন্তু তবু পান থেকে চুন খসলেই শরীর যেনো নাগালের বাইরে।

কিন্তু জানেন কি আপনার রোজকার মেনু চার্টে সামান্য পরিবর্তন করলেই শরীর থাকবে এক্কেবারে ফিট।

রোজ পাতে থাক একটা করে চুমু। ব্যাস ডাক্তারবাবুদের সঙ্গে আপনার ডিভোর্স অনিবার্য।

এমনই নিদান দিচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। সম্প্রতি তাঁদের গবেষণায় উঠে এসেছে, প্রতিদিন প্রিয়জনকে বা পছন্দের মানুষকে সুন্দর করে একটা চুমু খান…ব্যাস তাহলেই সুস্থ থাকবেন আপনি। ভাবছেন কীভাবে?

১.ক্যালোরি বার্ন করতে চান? হেঁটে-ছুটে বা স্ট্রিক্ট ডায়েটেও নাগালের বাইরে ক্যালোরি? জানেন কি স্রেফএকটা চুমুতেই ১২০ কিলো ক্যালোরি বার্ন করা যায়।


২.অ্যালার্জি প্রতিরোধে: চিংড়ি হোক বা ডিম, অ্যালার্জির ভয়ে মুখে তুলতে পারেননা…তবে চুমুতে অ্যালার্জি, এমনটা কখনও শুনেছেন নাকি? চুমু খেলে রক্তে অ্যালার্জি প্রতিরোধক অ্যান্টিবডি তৈরি হয়। ফলে চোখ দিয়ে জল পড়া, নাক দিয়ে জল পড়া এবং হাঁচির মতো উপসর্গ বন্ধ হয়ে যায় নিমেষে।

চাপ মুক্ত থাকা যায়- জীবনের যাবতীয় স্ট্রেস-টেনশন থেকে দূরে থাকার অব্যর্থ ওষুধ একটা গভীর চুম্বন। কারণ, চুমু খাওয়ার সময় আমাদের দেহ থেকে অক্সিটোসিন হরমোনের ক্ষরণ হয়। যার প্রভাবে মন অনেক বেশী হালকা হয়ে যায়।

ফুসফুসের রোগ হয় না- ফুসফুসের ক্যান্সার বা অন্য কোনও রকম সংক্রমণ থেকে অনেকটাই দূরে রাখে রোজ একটা করে চুমু। এতে ফুসফুসও শক্তিশালী হয়।

ত্বকে বয়সের ছাপ পড়ে না- যাঁরা নিয়মিত চুমু খান, তাঁদের ত্বকে বয়সের ছাপ অনেক পরে আসে। এমনকী মুখে বলিরেখাও কম পড়ে।

মাথাব্যথা কমায়- যে কোনও রকম মাথাধরা, ব্যথা ওষুধ ছাড়াই অনেক কমিয়ে দেয় একটা আদুরে চুমু।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে- মুক্ত মনে চুমু মনের চাপ কমায়, ফলে রক্তচাপও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

হার্টবিট ঠিক রাখে এবং হার্টের কোনও রকম সমস্যা থেকেও দূরে রাখে একটি গভীর চুম্বন।