Date : 2020-10-25

আয়করের খোঁজ নিতে এবার এয়ারপোর্টে নজরদারি কমিশনের

ওয়েব ডেস্ক: নির্বাচনের আগে নজরদারি বাড়াতে আরও কড়া হল কমিশন।

রাজ্যের সমস্ত বানিজ্যিক ফ্লাইট সংক্রান্ত তথ্য জানাতে হবে নির্বাচন কমিশনে।

এই সংক্রান্ত নির্দেশ ইতিমধ্যে পৌঁছে গেছে সমস্ত এয়ারপোর্টগুলিতে।

নির্দেশে বলা হয়েছে চার্টাড ফ্লাইট নামার অন্তত ৩০ মিনিট আগে সেই ফ্লাইট সংক্রান্ত তথ্য জানাতে হবে কমিশনকে।

একই সঙ্গে এয়ারপোর্ট অথরিটিকে চার্টাড ফ্লাইট সংক্রান্ত সব তথ্য রেকর্ড রাখতে হবে।

এই প্রসঙ্গে আরও যত্নবান হতে হবে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলকে।

চার্টাড ফ্লাইটের নিময় প্রযোজ্য হবে হেলিকপ্টারের ক্ষেত্রেও। বিষয়টির সঙ্গে জরিত আছে এক্সপেনডিচার মনিটারিং, তাই কড়া বার্তা দিয়েছে কমিশন। প্রসঙ্গত, নির্বাচনে প্রত্যের প্রার্থীকে ব্যক্তিগত আয় আয়কর সংক্রান্ত তথ্য দিতে হবে কমিশনকে। মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের দপ্তরে এয়ারপোর্ট অথরিটির আধিকারিকদের ডেকে পাঠানো হয় নির্দেশ সংক্রান্ত বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনার জন্য। শনিবার শহরে এসে এয়ারপোর্ট অথরিটি ও আয়কর বিভাগের সঙ্গে বৈঠক করেন উপ মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক।

বৈঠকের শেষে সুদীপ জৈন জানান, চাটার্ড ফ্লাইট এবং সাধারণ ফ্লাইটের সমস্ত প্যাসেঞ্জারের লাগেজ এবং হ্যান্ডব্যাগ চেক করতে হবে। আইনের ঘেরাটেপ থাকায় এক কেজির বেশি যেকোনো লাগেজ চেক করতে পারবে সিআইএসএফ। ১০ লাখের বেশি নগদ কারো কাছে থাকলে তা আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করতে হবে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে। তা জানাতে হবে এয়ারপোর্টে থাকা ইনকাম ট্যাক্স আধিকারিকদের। এয়ারপোর্টের কোনও সিসিটিভি বিকল থাকা চলবে না। এমনকি বানিজ্যিক এয়ারপোর্টগুলিতে আয়করের প্রতিনিধি রাখারও নির্দেশ দিয়েছে কমিশন। সমস্ত তথ্য জানাতে হবে সংশ্লিষ্ট জেলার ডিসট্রিক্ট ইলেক্টোরাল অফিসারকে।