Date : 2021-05-07

বিজেপির ইস্তেহার প্রকাশ…

ওয়েব ডেস্ক: হাতে আর মাত্র দু’দিন। তারপরই শুরু হতে চলেছে সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোট। প্রার্থী তালিকা প্রকাশের মতোই ইস্তেহার প্রকাশেও বিজেপির হাই সাসপেন্স। একেবারে শেষ মুহূর্তে বিশেষ চমক নিয়ে ইস্তেহার প্রকাশ করল বিজেপি। গত পাঁচ বছরে খতিয়ানকে তুলে ধরে এ বারের ইস্তেহারের বিজেপির মূল ভাবনা, “কাম করনেওয়ালি সরকার”। নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির চেয়ে একধাপ এগিয়ে এই ইস্তেহারকে ‘সংকল্প পত্র’ বলেই দাবি করছে পদ্মশিবির। বিজেপির স্লোগান ক্যাম্পেন প্রকাশের সময় অরুণ জেটলি বলেন, প্রচারের প্রথম ভাবনা থাকবে “কাম করনেওয়ালি সরকার”।  সততার সঙ্গে সরকার পরিচালনার ক্ষেত্রে ‘ইমানদার সরকার’ হবে দ্বিতীয় ভাবনা। দেশের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে মোদী সরকারের পদক্ষেপ করা নিয়ে তাদের প্রচারের তৃতীয় অস্ত্র ‘বড়ে ফয়সলে লেনে ওয়ালি সরকার’।
ইস্তেহারে কী রয়েছে বিশেষ চমক, দেখে নিন একনজরে,

সেচ ব্যবস্থা সম্পূর্ণ করা হবে।

২০২২ সালে নতুন ভারত তৈরি করতে ৭৫টি পদক্ষেপ করা হয়েছে।

 বিধবা পেনশন, অনুদান-সহ যে কোনও সরকারি সাহয্য সরাসরি ব্যাঙ্কে অর্থ দেওয়া হবে।

 দেশের ছোটো ব্যবসায়ী বা দোকানদারকে ৬০ বছরের পর পেনশন দেওয়া হবে

 রাষ্ট্রীয় বাণিজ্য আয়োগ তৈরি হবে।

#ভোটের ব্যারোমিটার: নজরে হুগলী লোকসভা কেন্দ্র

দেশের প্রত্যেক ঘরে শৌচালয়, বিদ্যুত এবং পরিস্রুত পানীয়ের ব্যবস্থা করা হবে।

 সব গরিবকে রান্নার গ্যাস দেওয়া হবে।

 শিক্ষাক্ষেত্রে আসন সংখ্যা বাড়ানো হবে। ইঞ্জিনিয়ারিং এবং আইনের আসন সংখ্যা বাড়ানো হবে।

এক  লক্ষ ক্রেডিট কার্ডের ঋণ মিলছে ,তার সুদ শূন্য আনা হবে।

 ৬০ বছর পর কৃষকদের পেনশন দেওয়া হবে।

 সৌহার্দ্য বাতাবরণে তৈরি করা হবে রামমন্দির নির্মাণ

 অনুপ্রবেশকারী নিয়ে আইন এনে রক্ষা করার চেষ্টা হবে।

 জঙ্গিবাদ উত্খাত করতে যে কোনো প্রয়জনীয় ব্যবস্হা নেওয়া হবে।

২০২৪ সালের মধ্যে বিশ্বের দ্রুততম অর্থনীতির দেশ তৈরি করার সংকল্প নেওয়া হয়েছে।

জাতীয় নিরাপত্তার উপর বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে।