Date : 2019-07-23

“দুর্যোধন, দুঃশাসনের রাজত্ব চলছে” নদিয়ায় বুনিয়াদপুরের পাল্টা মমতার

নদিয়া: শনিবার সকাল থেকেই নির্বাচনী প্রচারে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। সকালে দক্ষিণ দিনাজপুরে বিজেপির প্রচার সভায় নরেন্দ্র মোদীর আক্রমণের কেন্দ্র বিন্দু ছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। সেই আক্রমণের উত্তর ফিরিয়ে দিতে কয়েকঘন্টার মধ্যে অগ্নিগর্ভ ভাষণ দিয়ে পাল্টা জবাব ফিরিয়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ঘুম উড়েছে মমতার, নরেন্দ্র মোদীর এই ভাষণের পাল্টা উত্তরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “হেরে যাওয়ার আতঙ্কে ভুগছেন নরেন্দ্র মোদী”। এদিন নদীয়ার পানিঘাটায় কৃষ্ণনগরের প্রার্থী মহুয়া মৈত্রর হয়ে সভা করেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রচন্ড ভিড়ে সামান্য বিশৃঙ্খলার কারণে সামান্য বিরক্ত হয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। ধর্মীয় বিভেদের অভিযোগ তুলে প্রত্যকটি সভাতেই বিজেপিকে তোপ দাগেন মুখ্যমন্ত্রী।

এনআরসি করে অসম থেকে ২২ লক্ষ্য লোক তাড়িয়েছে বিজেপি। বাংলায় কিছুতেই এনআরসি চালু হতে দেব না। ফের একবার এনআরসি নিয়ে এদিন বিজেপিকে কটাক্ষ করেন মমতা। দেশ জুড়ে দুর্যোধন, দুঃশাসনের রাজত্ব চলছে বলে মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কটাক্ষ করেন। পানিঘাটার সভা শেষ করে মুখ্যমন্ত্রী নদিয়ার বগুলায় অন্য একটি সভা করেন। সেখানে কৃষ্ণগঞ্জের নিহত বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাসের স্ত্রী ও রানাঘাট লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী রূপলী বিশ্বাসের সমর্থনে জনসভা করেন। জেলায় উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরার পাশাপাশি কংগ্রেস ও সিপিআইএম-কে তুলোধুনো করেন মুখ্যমন্ত্রী। বুনিয়াদপুরে মোদীর সভাকে কেন্দ্র করে বিজেপির মধ্য যতটা আত্মবিশ্বাসের ছিল নদীয়ার সভা থেকে কার্যত সেই আত্মবিশ্বাসেই আঘাত হানলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।