Date : 2019-08-18

২৮ তারিখ পর্যন্ত গ্রেফতারি নয়, অর্জুনের ‘সুপ্রিম’ রক্ষা কবজ

উত্তর ২৪ পরগণা: বিধানসভা উপ-নির্বাচন ঘিরে রবিবার থেকে দফায় দফায় রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তাল হয়ে উঠেছে ভাটপাড়া, কাঁকিনাড়া চত্বর। কেন্দ্রীয় বাহিনীর রুটমার্চ এমনকি ১৪৪ ধারা অতিক্রম করেও এলাকায় জারি থাকে ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক হিংসা।

তিন দিন ধরে এক নাগাড়ে তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে রাজনৈতিক সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে, মুড়িমুড়কির মতো বোমাবর্ষণ আর ইটবৃষ্টির ফলে সন্ত্রাসের বাতাবরণ অব্যহত। এলাকায় রাজনৈতিক হিংসার ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর অজুহাত দেখিয়ে আগাম সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেন অর্জুন সিং।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যে অর্জুন সিং-এর বিরুদ্ধে এলাকায় হিংসা ছড়ানোর অভিযোগ নিয়ে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছেন তৃণমূল নেতা তথা ভাটপাড়া বিধানসভা উপ-নির্বাচনের তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র। একই অভিযোগ করেছেন, তৃণমূল নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

তাদের অভিযোগ, বোমা-গুলি নিয়ে এলাকায় সন্ত্রাসের পরিবেশ তৈরি করার চেষ্টা করছেন অর্জুন সিং। নির্বাচন কমিশনের সিইও-কেও অভিযোগপত্র জমা দেন তারা। এই অভিযোগের ভিত্তিতেই ষড়যন্ত্রের অভিযোগর কথা তুলে আগাম সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হলেন ব্যারাকপুরের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং।

মঙ্গলবার বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় আশঙ্কাপ্রকাশ করে বলেছিলেন, ভুয়ো সংঘর্ষে হত্যা করা হতে পারে অর্জুন সিংকে। এদিন সুপ্রিম কোর্ট এই মামলার শুনানিতে পাঁচ দিনের রক্ষা কবচ দিয়েছে অর্জুন সিংকে।

আগামী ২৮ তারিখ পর্যন্ত তাঁকে গ্রেফতার করা যাবে না বলে জানানো হয়েছে উচ্চ আদলতের পক্ষ থেকে। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ভাটপাড়া অঞ্চল বেশ থমথমে ছিল। সংঘর্ষের ঘটনা না থাকলেও সকাল থেকে এলাকায় রয়েছে কড়া নিরাপত্তা। কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশাপাশি এলাকা ঘিরে রেখেছে বিশাল পুলিশ বাহিনী।