Date : 2021-02-28

রোজ লাঞ্চে মাছ? নিজের ক্ষতি করছেন না তো!

ওয়েব ডেস্ক:  মাছে-ভাতে বাঙালি এটা তো কথাতেই আছে। বাঙালি বাড়িতে পাতে মাছ থাকবে না সেটা ভাবাই যায় না। মাছ ছাড়া খাওয়াটাই যেন অসম্পুর্ণ। তবে মাছের মধ্যেও আবার দুটো ভাগ আছে।

একটা হল মিষ্টি জলের মাছ অর্থাৎ নদীর মাছ, অপরটা নোনতা জলের মাছ অর্থাৎ সমুদ্রের মাছ। এই দুইরকম মাছের মধ্যে ভালো খারাপ দুটোই আছে। চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক, কোন মাছ আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ভালো আর কোন মাছ খারাপ?

১. ক্যালশিয়াম ও ফসফরাস ইত্যাদি নোনতা জলের মাছ অপেক্ষা মিষ্টি জলের মাছে বেশি থাকে। যা শরীরের জন্য উপযোগী।

২. ইকোসাপেন্টানোয়িক মিষ্টি জলের মাছে নোনতা জলের মাছের থেকে বেশি থাকে।

৩. ডোকোসাহেক্সানোয়িক অ্যাসিড বেশি থাকে নোনতা জলের মাছের তুলনায় যা শরীরের জন্য উপকারী।

৪. মার্কারির পরিমাণ নোনতা জলের মাছের তুলনায় মিষ্টি জলের মাছে বেশি থাকে, যা শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

৫. ক্ষতিকর ডাইঅক্সিন থাকে মিষ্টি জলের মাছে।

৬. মিষ্টি জলের মাছে ক্ষতিকারক পিসিবি, লেড এইগুলিও বেশি থাকে নোনতা জলের মাছের তুলনায়।

৭. ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডও বেশি থাকে মিষ্টি জলের মাছে, যা শরীরের ক্ষতি করে।

৮. মিষ্টি জলের মাছ ও নোনতা জলের মাছ অপেক্ষা দূষিত হয় বেশি।

৯. শরীরে উপযোগী ক্যালসিয়াম, ফসফরাস প্রভৃতি মিষ্টি জলের মাছ অপেক্ষা নোনতা জলে বেশি থাকে।

১০. নোনতা জলের মাছে শরীরের উপযোগী ডি.এইচ.এ কম থাকে মিষ্টি জলের মাছের তুলনায়।