Date : 2019-07-23

দিলীপের কনভয়ে হামলা, নির্বাচন কমিশনে নালিশ বিজেপির

পূর্ব মেদিনীপুর: বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের কনভয়ে হামলার ঘটনায় নির্বাচন কমিশনের দারস্থ বিজেপি। মঙ্গলবার রাত ১০:৩০ নাগাদ একটি মিছিল থেকে ফিরছিলেন দিলীপ ঘোষ। সেই সময় খেজুরীতে হঠাৎই তৃণমূল-বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার খবর আসে। সংঘর্ষের ঘটনায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিজেপির উপর হামলার অভিযোগ ওঠে। ঘটনার প্রতিবাদে কুঞ্জপুরে পথ অবরোধে বসেন বিজেপি কর্মীরা। ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন কটকাদেবী চক গ্রামের ১৮৪ নম্বর বুথের বিজেপির সভাপতি লালমোহন মাইতি ও তার ছেলে শিবুরঞ্জন মাইতি।

অভিযোগ তাদের উপর প্রায় ২৫ থেকে ৩০ জন তৃণমূল কর্মী বাঁশ-লাঠি নিয়ে হামলা চালায়। ঘটনাস্থলে আহত হন দুই বিজেপি নেতা। তাদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ঘটনাস্থলে পৌঁছতেই তার কনভয়ের উপর হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। সূত্রের খবর, ওই সময় দিলীপ ঘোষের সঙ্গে উপস্থিত ছিলন অসমের মন্ত্রী হেমন্ত বিশ্বশর্মা। ভাঙা হয় দুটি মোটর সাইকেল। কেড়ে নেওয়া হয় মোবাইল ফোন।

অভিযোগ, রাত ১১:৩০ নাগাদ বিজেপির বেশ কয়েকজন নেতা কর্মীর বাড়িতে ভাঙচুর চালায় দুষ্কৃতীরা। হামলার সঙ্গে জড়িত থাকার ঘটনায় প্রকাশ্যে এসেছে গোরাহার জলপাই-এর তৃণমূল এর বুথ সভাপতি বাপী জানা, সুভাষ জানা, কালিপদ দাস,নিলোৎপল পাত্র সহ বেশ কয়েকজন তৃণমূল কর্মীর নাম। তাদের বিরুদ্ধে খেজুরী থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। ঘটনার অভিযোগ জানাতে বুধবার সকালে নির্বাচন কমিশনের দফতরে উপস্থিত হন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার সহ বিজেপির একটি প্রতিনিধি দল। বিজেপির অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা শাসকের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে নির্বাচন কমিশন। বিজেপি সূত্রে খবর, দিলীপ ঘোষের কনভয়ে হামলার ঘটনায় বৃহত্তর আন্দোলনের পথে নামতে চলেছে দল।