Date : 2021-03-06

কে ভাঙল মূর্তি? গঠিত হল পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি

ওয়েব ডেস্ক: বিদ্যাসাগর কলেজে মুর্তি ভাঙার ঘটনার তদন্ত করতে কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। তদন্ত কমিটির মুখ্য হিসাবে থাছেন সদ্য পদপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রসচিবের আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।

সোমবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন কে বা কারা এই মুর্তি ভেঙেছে তার পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তৈরি করতে হবে কমিটিকে। উল্লেখ্য, শেষ দফা ভোটের আগে অমিত শাহের রোড শোকে কেন্দ্র করে উত্তর কলকাতার কলেজ স্ট্রীটে ধুন্ধুমার কান্ড বেঁধে যায়। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিদ্যাসাগর কলেজ পর্যন্ত রাস্তায় কার্যত রণক্ষেত্রের চিত্র উঠে আসে।

সংঘর্ষের সময় বিদ্যাসাগর কলেজের মধ্যে থেকে বিদ্যাসাগরের মূর্তি বাইরে এনে আছড়ে ভেঙে ফেলা হয়। এই ঘটনার জেরে তীব্র নিন্দা শুরু হয় রাজ্য রাজনীতিতে। তৃণমূলের অভিযোগ, বিজেপির কর্মী সমর্থকরা মূর্তি ভেঙে ফেলে কলেজের মধ্যে ঢুকে। বিজেপি এই ঘটনার দায় অস্বীকার করে নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি করেছে।

গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ তাদের কর্মী সমর্থকদের উপর ইট ছোঁড়া হয়। এই ঘটনার সত্যতা প্রমানের জন্য সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ্যে আনার দাবি করেছে বিজেপি। এই ঘটনায় ইতিমধ্যে ৩৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রাজ্য সরকারের গঠিত কমিটিতে রয়েছেন কলকাতার পুলিস কমিশনার, অতিরিক্ত পুলিস কমিশনার জাভেদ শামিম, ইনস্পেক্টর কৌশিক দাস ও বিদ্যাসাগরের কলেজের প্রিন্সিপ্যাল।

কমিটির চেয়ারম্যান স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃণমূল ছাত্র পরিষদের অভিযোগ, কালো পতাকা দেখানোর সময় আচমকাই বিজেপির সমর্থকরা তাদের উপর ইটবৃষ্টি করতে শুরু করে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের দরজা ভেঙে ফেলার চেষ্টা করে। কার্যত তাণ্ডব চালিয়েছে বিজেপি সমর্থকরা এমনটাই অভিযোগ করা হয়েছে। ঠিক একই ভাবে অভিযোগ করা হয়েছে বিদ্যাসাগর কলেজের পড়ুয়াদের তরফে।

আমর্হাস্ট স্ট্রিট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বিদ্যাসাগর কলেজের তরফে। এবার সেই অভিযোগের তদন্ত করতেই এই তদন্ত কমিটি তৈরি করা হয়েছে। শেষ দফা ভোটে মূর্তি তরজায় নেমে নরেন্দ্র মোদী এই স্থানেই পঞ্চধাতুর মূর্তি নির্মান করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি কেন্দ্র দেন।

পাল্টা রাজপথে ধিক্কার মিছিল করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সঙ্গে ছিলেন রাজ্যের বুদ্ধিজীবীদের একাংশ। ভোট পরবর্তি সময় কেটে গেলেও বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা নিয়ে তরজা তুঙ্গে। এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্তের নিরিখে দোষীদের শাস্তির দাবি উঠেছে বিভিন্ন মহলে।