Date : 2019-08-23

নাকা চেকিং-এ ভারতীর কাছ থেকে উদ্ধার টাকা, রিপোর্ট তলব কমিশনের

পশ্চিম মেদিনীপুর: বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের গাড়ি থেকে লক্ষাধিক টাকা উদ্ধারের ঘটনায় জেলা শাসকের কাছে রিপোর্ট তলব করল নির্বাচন কমিশন। বৃহস্পতিবার রাতে নাকা চেকিং-এর সময় বিজেপি প্রার্থীর গাড়ি থেকে লক্ষাধিক টাকা উদ্ধার হয়। সূত্রের খবর, তল্লাশি চালাতে বাধা দেন ভারতী ঘোষ। এরপরেই পুলিশ তাকে আটক করে। রাতে তাকে কিছুক্ষণ জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ভারতীর অভিযোগ, এই ঘটনায় পরিকল্পিত ভাবে তাকে ফাঁসানো হয়েছে। যদিও পুরো ঘটনার অভিযোগ উড়িয়ে ভারতী ঘোষের বিরুদ্ধে টাকা বিলি করে ভোট কেনার অভিযোগ এনেছে তৃণমূল। নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুসারে, একজন প্রার্থীর কাছে নগদ সর্বাধিক ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত থাকতে পারে।

তাহলে ভারতী ঘোষ এত টাকা নিয়ে রাতে কোথায় যাচ্ছিলেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে রাজনৈতিক মহলে। একসঙ্গে এত টাকা উদ্ধারের ঘটনায় ভারতী ঘোষের প্রার্থীপদ বাতিলের দাবি তুলেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

ঘাটালে ভারতীর প্রচার বন্ধ করতেই এই ষড়যন্ত্র করেছে তৃণমূল, বিজেপি সূত্রে এমনই অভিযোগ উঠে আসছে। রবিবার নির্বাচনের আগে এই ঘটনায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। বিজেপি নেতৃত্ব এই অভিযোগের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানাবে বলে জানিয়েছে। ঘাটালে দেবের বিরুদ্ধে ভারতী ঘোষ প্রার্থী হওয়ার পর থেকেই তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে চাপা উত্তেজনা চলছেই।

ভোটের আগে ভারতীকে আটক করার ঘটনায় সেই উত্তেজনা আরও বাড়ল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। এর আগে রাজ্যে বহিরাগত ঢোকানো ও উষ্কানিমূলক মন্তব্যের ভারতী ঘোষের বিরুদ্ধে রিপোর্ট তলব করেছিল নির্বাচন কমিশন। এবার টাকা পাচারের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে রিপোর্ট তলব করল কমিশন।