Date : 2019-08-23

শহরে সুষ্ঠ নির্বাচন করতে কলকাতা পুলিশের বৈঠক…

কলকাতা: ভোট প্রক্রিয়া সুষ্ঠ ভাবে সম্পন্ন করার জন্য বাহিনীকে সবরকম ভাবে সক্রিয় থাকার নির্দেশ দিলেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজেশ কুমার। আগামী ১৯ মে শেষ দফায় ভোট হবে রাজ্যে। কলকাতা উত্তর ও কলকাতা দক্ষিণ, এই দুই কেন্দ্র ছাড়াও যাদবপুর কেন্দ্রেরও একটা বড় অংশ কলকাতা পুলিশের আওতায় পড়ে। তার আগে মঙ্গলবার কলকাতা পুলিশের ডিভিশনাল অফিসার ও ওসিদের নিয়ে মিটিং করেন সিপি।

এদিন বৈঠকে শহরে ভোটে অশান্তি ঠেকাতে কি কি ব্যবস্থা নেওয়া হবে সে বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হল। পঞ্চম দফার পর থেকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সংখ্যা আরও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কলকাতার ১০০ শতাংশ বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে এমনটাই মনে করা হচ্ছে কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে।

সূত্রের খবর, ভোটের পাঁচ-ছয় দিন আগেই বাহিনী শহরে পৌঁছে যাবে। অনুজ শর্মা ক্ষমতা থেকে সরে যাওয়ার পর রাজেশ কুমার ক্ষমতা পেয়েছেন। শহরে নির্বিঘ্নে ভোট করার দায়িত্ব তার উপর। লালবাজার সূত্রের খবর, ভোট উপলক্ষ্যে সব মিলিয়ে ১৫০ কোম্পানি বাহিনী আসতে পারে কলকাতায়।

বড় ধরণের গোলমাল এড়ানোর জন্য থাকবে কুইক রেসপন্স টিম। ১৩ তারিখ শহরে আসতে পারে কেন্দ্রীয় বাহিনী। ভোটের আগে শহরে বাহিনী ও পুলিশ যৌথ রুট মার্চ করবে। যেসব এলাকা উত্তেজনাপ্রবন সেখানে বাড়তি নজরদারির ব্যবস্থা করা হয়েছে। ভোটের দিন বা ভোটের আগের যে বা যারা অশান্তি করতে পারে তাদের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেফতারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।