Date : 2022-09-29

নেতাজীকে অখন্ড ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রীর স্বীকৃতি দিতে চায় মোদী সরকার

ওয়েব ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদী।

দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে তিনি একাধিক বিষয়ে ঘোষণাও করেছেন দেশবাসীর উদ্দেশ্যে।

স্বাধীনতা লাভের প্রাক্কালে নেতাজীর অন্তর্ধান রহস্য আন্তরালে থেকে গেছে দেশবাসীর কাছে।

বিমান দুর্ঘটনা নাকি রাজনীতির গোপন ষড়যন্ত্র নেতাজীকে নিয়ে গিয়েছিল অন্তরালে তা এখনও স্পষ্ট নয়।

তাঁর মৃত্যুরও কোন হদিশ মেলেনি।

এই রহস্য উন্মোচনে গঠিত হয়েছে একাধিক কমিশন, তারপর গঙ্গা দিয়ে বয়ে গেছে অনেক জল, রহস্য থেকে গেছে আড়ালেই।

নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুকে উপযুক্ত সন্মান দিতে এবার আসরে নামতে চলেছে বিজেপি সরকার।

সূত্রের খবর, নেতাজী অখন্ড ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী ছিলেন এই স্বীকৃতি দানের জন্য নব গঠিত মন্ত্রীসভা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।

আরও জানা গেছে যে আগামী ২১ অক্টোবর দিনটিকে জাতীয় স্তরে “আজাদ হিন্দ দিবস” হিসাবে পালন করা হবে।

এই দিনটিকে ২৬ জানুয়ারি এবং ১৫ আগস্টের মতো বিশেষ স্বীকৃতি দিয়ে পালন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

১৯৪৩ সালের ২১ অক্টোবর নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসু গঠন করেছিলেন স্বাধীন আজাদ হিন্দ বাহিনী।

স্বপ্ন দেখেছিলেন ঔপনিবেশিক শক্তির বিরুদ্ধে সসস্ত্র সংগ্রাম করে স্বরাজ ছিনিয়ে নেবার।

এই বাহিনীর নেতৃত্বে আন্দামান নিকোবর দ্বীপ এবং ইম্ফলে তিনি জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।

তাকে সমর্থন করেন সোভিয়েত ইউনিয়ন, জাপান, জার্মানি সহ ১১টি দেশ।

তাই এই দিন ছিল দেশের পূর্ণস্বরাজ প্রাপ্তির প্রথম দিন।

নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন মন্ত্রীসভা এই দিনটিকে স্বাধীনতা দিবস এবং প্রজাতন্ত্র দিবসের সমান স্বীকৃতি দিতে চেয়েছেন।

এই ১১ টি দেশের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের সহযোগিতা এবং সম্মতির জন্য আর্জি জানাতে পারেন নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন মন্ত্রীসভা।

যদিও এই বিষয় নিয়ে এখনও পর্যন্ত জল্পনা রয়েছে।