Date : 2021-02-28

গরহাজির রাজীব, বারাসত কোর্ট ও বাড়ির সামনে অপেক্ষায় সিবিআই

ওয়েব ডেস্ক: কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে ফের সিবিআই হানা। রবিবার রাতে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা রাজীব কুমারের লাউডন স্ট্রিটের বাড়িতে হানা দেয়। কিন্তু সেখানে সিবিআই কর্তাদের জানানো হয়, রাজীব কুমার সেখানে থাকেন না।

অগত্যা কেন্দ্রীয় তদন্তকরী সংস্থা হানা দেয় পার্কস্ট্রিট পুলিশ কোয়ার্টারে। সেখানে রাজীব কুমারকে নোটিশ দেওয়া হয়। বলে সূত্রের খবর। রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে সারদা কাণ্ডের তথ্যপ্রমাণ নষ্টের অভিযোগ রয়েছে। এর আগে গত ফেব্রুয়ারি মাসে রাজীব কুমারের বাসভবনে যায় সিবিআই। তখন তিনি কলকাতার পুলিশ কমিশনার পদে বহাল ছিলেন।

এই ঘটনার জেরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ধর্নায় বসেন। রবিবার সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা নোটিশ দিয়ে আসেন। সূত্রের খবর গতকাল সারাদিন রাজীব কুমারের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি যোগাযোগ করেননি।

তাই সন্ধ্যায় তার বাসভবনে হানা দেয় সিবিআই কর্তারা। সোমবার সকাল ১০টার মধ্যে রাজীব কুমারকে সল্টলেকের সিজিও কম্পলেক্সে সিবিআই দফতরে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়ছিল। কিন্তু সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরেও সিবিআই দফতরে রাজীব কুমার হাজির হননি। তবে রাজীব কুমার এখন কোথায় সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

রাজীব কুমারের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য সেই কারণে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার একটি দল বারাসত আদালতে হাজির হয়েছে। একটি দল ভবানী ভবনের সামনে অপেক্ষা করছে। অন্য একটি দল পার্ক স্ট্রিটেও রয়েছে।

প্রসঙ্গত, সিবিআই বার বার আবেদন করা সত্ত্বেও রাজীবকে হেফাজতে নিয়ে জেরা করার অনুমতি দেয়নি সুপ্রিম কোর্ট। শিলং-এ গিয়ে রাজীবকে সিবিআই ম্যারাথন জেরা করার পরেও কোন সহায়তা মেলেনি বলে সিবিআই ফের তাকে হেফাজতে নিয়ে জেরা করার আবেদন করে সুপ্রিম কোর্টে।

এরপর রাজীব কুমারের রক্ষাকবচ সরিয়ে নেয় সুপ্রিম কোর্ট। রাজীবকে সাতদিনের সময়সীমা দেওয়া হয় আইনি সহায়তা নেওয়ার জন্য। কিন্তু রাজ্যে আইনজীবীদের ধর্মঘট চলছে, তাই আইনি সহায়তা নিতে পারেননি রাজীব কুমার।

উল্টে সুপ্রিম কোর্ট লুক আউট নোটিশ জারি করেছে রাজীবের বিরুদ্ধে। তবে সোমবার বারাসত জেলা আদালতে হাজির হতে পারেন রাজীব কুমার। আগাম জামিনের আবেদন করতে পারেন। সেই কারণে সিবিআই সেখানে আগে থেকেই উপস্থিত রয়েছে বলে সূত্রের খবর।