Date : 2019-08-18

মূর্তির উন্মোচনে পিছিয়ে গেল পরীক্ষা, রাজনীতির অভিযোগ

কলকাতা: লোকসভা নির্বাচনের আগে অমিত শাহর প্রচারকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কাণ্ডে বিদ্যাসাগর কলেজ উঠে আসে সংবাদ শিরোনামে। পন্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের আবক্ষ মূর্তি ভাঙাকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়ে ওঠে রাজ্যের রাজনীতি। ঘটনার পরে ভেঙে যাওয়া মূর্তি পুনঃনির্মান কে করবে তাই নিয়ে নবান্ন ও দিল্লির মধ্যে শুরু হয় তরজা। শেষ পর্যন্ত রাজ্য সরকারের উদ্যোগে স্থির করা হয়, বিদ্যাসাগরের মূর্তি উন্মোচন করা হবে বিদ্যাসাগর কলেজে।

১১ জুন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে মূর্তি উন্মোচন অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যে রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়ে গেছে। এই অনুষ্ঠানের জন্য কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকস্তরে পরীক্ষাসূচীতে বদল আনা হয়েছে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি, অনুষ্ঠানের জন্য নয়, আগে থেকেই বদলে দেওয়া হয়েছিল পরীক্ষাসূচী। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, ১১ ও ১২ তারিখের পরীক্ষাসূচী বদলে ১৩ ও ১৪ তারিখ করা হয়েছে। ওই দিন বিদ্যাসাগর কলেজে বিজ্ঞান বিভাগের কিছু প্রাক্টিক্যাল পরীক্ষা নেওয়ার কথা ছিল।

১১ জুন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সেখান থেকে শোভাযাত্রা করে বিদ্যাসাগর কলেজ পর্যন্ত এসে মূর্তি উন্মোচন করবেন মুখ্যমন্ত্রী। এই ঘটনায় একাংশের মত, এবার শিক্ষাক্ষেত্রেও সরাসরি রাজনীতি প্রবেশ করছে।তাই মুখ্যমন্ত্রীর অনুষ্ঠানের জন্য বদলে ফেলা হয়েছে পরীক্ষাসূচী। এই বদলের ফলে ছাত্রছাত্রীদের সমস্যার মধ্যে পড়তে হবে বলেই মনে করছেন শিক্ষামহলের একাংশ। তবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় অবশ্য এই দাবি মানতে নারাজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, অনেকদিন আগেই পরীক্ষা নিয়মকের সঙ্গে কথা বলে পরীক্ষাসূচী বদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কলেজ কর্তৃপক্ষ। মুখ্যমন্ত্রীর মূর্তি উন্মোচনের সঙ্গে এর কোন সম্পর্ক নেই।