Date : 2021-04-22

যেন অর্জুণের লক্ষ্যভেদ, টানা দুবছর স্মার্টফোন ছুঁয়ে দেখেননি NEET-টপার নলিন…

ওয়েব ডেস্ক: ‘রেজাল্ট ভালো করতে গেলে এই উপায়গুলি অবলম্বন করুন’। এরকম কথা আমরা আকছার শুনে থাকি। কিন্তু এই প্রশ্নের উত্তরটা এক একজনের কাছে এক এক রকম। কারোর অনেকক্ষণ ঘুমোলে পড়ায় মন বসে। কারোর আবার অনেকক্ষণ টিভি দেখলে মাথা হালকা হয়, যার ফলে পড়াটা আরও ভালো হয়।

এটা যার যার পড়াশুনো করার পদ্ধতির উপরে নির্ভর করে। তবে সবথেকে বেশি নজর সবার যেদিকে থাকে সেটা হল মোবাইল ফোনে। মা-বাবার সবসময় একটাই কথা শুনে  আজকালকার সমস্ত ছেলে-মেয়েরা বিরক্ত। এই ফোনটাই নাকি নষ্টের গোড়া। এটার জন্যই নাকি পড়াশুনার ক্ষতি হচ্ছে।

এই কথাটিকে বড়ই গম্ভীরভাবে মেনে নিয়েছিল NEET প্রবেশিকায় প্রথম স্থানাধিকারী নলিন খান্ডেলওয়াল। নিটে নলিনের মোট নম্বর ৭০১। পরীক্ষার আগের দুই বছর দূরদূরান্ত পর্যন্ত নলিনের কোনো সম্পর্কই ছিলনা ফোনের সঙ্গে। খুব স্বাভাবিকভাবেই সোশ্যাল মিডিয়াতেও কোনো অ্যাকাউন্ট নেই নলিনের।

তা বলে যে সর্বক্ষণ পড়ার বইতেই মুখ গুঁজে বসে থাকত সে, তা একেবারেই নয়। বরং দিনে ৭-৮ ঘন্টাই পড়ত নলিন। বাকি সময়টা সবার সঙ্গে গল্প করে কাটাত। তবে সে নিজেও সব কৃতিত্ব দিয়েছে এই ফোন না ব্যবহার করাকেই। নলিনের বাবা-মা দুজনেই ডাক্তার। ওনাদের সাহায্য না পেলেও এই ফল হওয়া সম্ভব হত না বলেই মনে করে নলিন খান্ডেলওয়াল।