Date : 2019-10-24

বাবার কেমো চালানোর জন্য ১০ ঘন্টা গেম খেলে টাকা উপার্জন ১৩ বছরের জাইলের…

ওয়েব ডেস্ক: বাবা অসুস্থ। মৃত্যুর প্রায় শেষ স্তরে দাঁড়িয়ে তিনি। রেক্টাল ক্যান্সারের চতুর্থ স্টেজে এখন তিনি।

বাড়ির অবস্থা যে খুব একটা ভালো তাও নয়। এদিকে ডাক্তার দিয়ে দিয়েছে জবাব। কেমো ছাড়া বাবা বাঁচবে মাত্র এক বছর।

আর কেমো চললে সেই সময়সীমা টেনে টুনে চলতে পারে ৩ বছর পর্যন্ত। সেই কেমো চালানোর জন্য প্রয়োজন প্রচুর টাকার। কিন্তু এতো টাকা কোথায়? তবে উপায় তো কিছু বের করতেই হবে।

বাবা বলে কথা। সেই উপায় বের করলে বছর ১৩-র ছেলেটি। প্রতিদিন সারারাত ধরে প্রায় ১০ ঘন্টা গেম খেলে সে জোগাড় করল তার বাবার চিকিৎসার খরচ।

প্রথমে বেশ কয়েক ঘন্টা ধরে অনলাইনে গেম খেলতে শুরু করে জাইল(zylTV)। পরে দেখে এতো কম সময় খেললে সে বাবার চিকিৎসার পুরো টাকাটা জোগাড় রতে পারবে না।

আরও পড়ুন : স্বামীর মৃত্যুর পর পাহাড়ের কোলে জন্ম “জোশ ক্যাফে”র, কতোটা কঠিন ছিল দীপ্তির যাত্রাটা?…

তাই সময়সীমা বাড়িয়ে করে ১০ ঘন্টা। গেম খেলা শুরুর সময় তার বাবার ক্যান্সারের তৃতীয় স্টেজ ছিল। কিন্তু পরে তার অসুখ বাড়ে।

ডাক্তার বলে বাবার ক্যান্সার ছড়িয়েছে লিভার ও লাঙসেও। ৫০০০ কানাডিয়ান ডলার জোগাড় করলেই হবে জাইলের (zylTV) বাবার চিকিৎসার পুরো টাকার জোগাড়।

#Newsrplus_Biswas_Abiswas

বিশ্বাস অবিশ্বাস – বুদ্ধি দিয়ে যার ব্যাখ্যা মেলে নাদেখুন আজ (12/07/19) রাত ১০ টায় শুধুমাত্র #Rplusnews এ#Newsrplus, #Biswas_Abiswas,

Posted by RPLUS News on Thursday, July 11, 2019

অনলাইন স্ট্রিমে তার বাবাকে আনে জাইল। জানায় সবটা।

সেই অনলাইনে গেম খেলা বাকি সদস্যরাও আস্তে আস্তে শুরু করে সাহায্য করা। জাইল (zylTV) নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টেও অনুরোধ করেছে টাকা দিয়ে সাহায্য করার জন্য। যতদিনের জন্যেই হোক, বাবাকে বাঁচিয়ে রাখাটাই এখন জাইলের (zylTV) একমাত্র উদ্দেশ্য।