Date : 2019-11-12

ভারতের সর্বপ্রথম কনিষ্ঠ লেখক হয়ে নজির গড়ল ৪ বছরের অয়ন…

ওয়েব ডেস্ক: বই পড়তে ভালোবাসে না এমন মানুষ খুব কমই পাওয়া যায়। তাদের মধ্যে বেশিরভাগ বইপ্রেমীই স্বপ্ন দেখে কোনোদিন নিজে একটি বই লেখার।

কিন্তু সবার সেই স্বপ্ন যে পূরণ হবেই, সে কথা ভাবাটা কিন্তু ভুল। তাই বেশিরভাগ সময়ই সেই স্বপ্নটা স্বপ্নই থেকে যায়। তবে কোনোদিন শুনেছেন ৪ বছরের বাচ্চা বই লিখেছে?  

আসামের বাসিন্দা ৪ বছর বয়সী অয়ন গোগোই গোহেনের তকমা জুটল ভারতের প্রথম সবথেকে কনিষ্ঠ লেখকের। য়ে বয়সে যেকোনো শিশুই ভালো করে কথা বলা পর্যন্ত শেখে না। সেই বয়সেই এতো বড় একটি তকমার অধিকারী হল অয়ন।

আসামের দক্ষিণ লখিমপুর জেলায় বাড়ি খুদে অয়নের। সেখানেরই সেন্ট মেরি স্কুলের ছাত্র সে। আগের বছর জানুয়ারী মাসে অয়নের বই “হানিকম্ব” মুক্তি পায়। এতো ছোটো বয়সে একটি বই লেখা একদমই ছোটো ব্যাপার নয়। কিভাবে ছোট্ট খুদের মাথায় এতো বুদ্ধি এলো যে, সে একটা আস্ত বই লিখে ফেলল জিজ্ঞেস করা হলে পাওয়া গেল উত্তর।

তার কথায়, তার আশেপাশে সে যা যা দেখতে পায় সেইগুলো নিয়েই লিখে ফেলে কোনো গল্প। বা এঁকে ফেলে কোনো ছবি। তবে অয়নের বেশিরভাগ সময়ই কাটে তার দাদুর সঙ্গে গল্প করেই। দাদুই তার প্রিয় বন্ধু, তার কাছে রকস্টার ও গল্পদাদু, এক কথায় সবকিছুই। তার চারিদিকে যে ঘটনাগুলি তার চোখে লাগে সেইগুলোই বাড়ি এসে অয়ন বলে তার দাদুকে।

বিশ্বাস অবিশ্বাস – বুদ্ধি দিয়ে যার ব্যাখ্যা মেলে নাদেখুন আজ রাত ১০ টায় শুধুমাত্র #Rplusnews এ#Newsrplus, #Biswas_Abiswas,

Posted by RPLUS News on Monday, July 8, 2019

দাদুই তাকে সবসময় সাহস যুগিয়ে এসেছে ও বারবার বলেছে গল্প লেখার জন্য। এছাড়াও অয়ন যোগা করতে ভালোবাসে। সঙ্গে কার্টুন দেখা তো আছেই। এছাড়াও ব্যাডমিন্টন খেলা থেকে শুরু করে বাগান পরিষ্কার, রান্না করা ও তার পোষ্য ওরিওর সঙ্গে খেলতেও ভালোবাসে। সে মনে করে দাদুর জন্যই আজ সে ভারতের প্রথম সবথেকে কনিষ্ঠ লেখক হতে পেরেছে। অয়নের ভবিষ্যতের জন্য অনেক শুভেচ্ছা।