Date : 2020-12-01

ফেসবুকে বৃদ্ধ সেজে আনন্দ! আপনার ফোন হ্যাক হল নাতো?…

ওয়েব ডেস্ক: ফেসবুকে এক এক সময় ভাইরাল হয় এক একটি অ্যাপের কীর্তি-কলাপ। মিউজিক্যালি, টিকটকের মতো পপুলার অ্যাপ নিয়ে উন্নাদনার শেষ নেই স্যোশাল মিডিয়ায়। এই অ্যাপগুলির ব্যাবহারে ফলে ঘটনার পাশাপাশি ঘটে গেছে অনেক দুর্ঘটনাও। এবার ফেসবুকে আমদানি হয়েছে নতুন এক বিষ্ময়ের। আপনাকে দেখতে ৭৫ বছর বয়সে কেমন হবে তা আগাম জানিয়ে দিচ্ছে ফেস অ্যাপ। মুখের ভোল পাল্টে এক নিমেশে ২৫ থেকে ৩০ বছর বয়স কমে অথবা বেড়ে যাচ্ছে অ্যাপের কেরামতিতে। এই মহুর্তে সোশ্যাল মিডিয়ার রীতিমতো ভাইরাল। হাতে গরম সেই ছবি পোস্ট করে দিচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়, এই নিয়ে আনন্দের শেষ নেই, তবে ষে কোন অ্যাপ ব্যাবহারের আগে জেনে নেওয়া উচিৎ তার ফিচার ও প্রাইভেসি পলিশি সম্পর্কে।

ফেস অ্যাপ সম্পর্কে প্রসঙ্গিক কতগুলি তথ্য-

১. ফেসঅ্যাপ তৈরি করেছে রাশিয়ান ওয়ারলেস ল্যাব।

২. দু বছর আগে এই অ্যাপটি গুগল-প্লে স্টোরে পাওয়া গেলেও ততটা পপুলার ছিল না।

৩.২০১৯-এ টেকনোলজি বদলে অ্যাপটি আরও উন্নত হয়।

৪.অ্যান্ড্রয়েড অথবা আইওএস-এ অ্যাপটি ব্যবহার করা যায়।

৫. ছবি ছাড়াও ব্যাবহারকারীর কাছ থেকে পাওয়া কিছু তথ্যের ভিত্তিতে এই অ্যাপটি ব্যাবহারকারীকে তার বৃদ্ধ বয়সের ছবি সহজেই এডিট করে দেখিয়ে দিতে পারে।

৬.ফেসঅ্যাপের পলিসি বলছে, তারা ব্যবহারকারীর আইপি অ্যাড্রেস, ব্রাউজারের কুকিজ, লগ ফাইল, ডিভাইসের বিভিন্ন তথ্য ও তাঁর অবস্থান সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করবে।

কর্তৃপক্ষ অবশ্য স্বীকার করেছে এই সব তথ্য তারা অন্য কারোর সঙ্গে বিতরণ করবেন না। তবে প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের মত, এই তথ্য যে কখনও ওপেন হবে না এমন কথার কথা দিলেও বাস্তবে তার সুরক্ষা কোথায়! প্রসঙ্গত এই সমস্ত তথ্য ফাঁস হলে আপনার ফোনের যাবতীয় তথ্য চলে যেতে পারে হ্যাকারদের হাতে। কোটি কোটি ব্যাবহারকারী যখন ব্যাবহার করছেন ফেস অ্যাপ তখন আদৌ কি সুরক্ষিত আছে তাদের তথ্য! খোঁজ নেওয়া অবশ্যই প্রয়োজন।