Date : 2019-09-19

রাত পোহালেই জন্মাষ্টমী, কিভাবে সাজাবেন গোপালকে দেখে নিন ভিডিও…..

কলকাতা: “গোঠের রাখাল বলে দে রে কোথায় বৃন্দাবন/ যেথা রাখাল রাজা গোপাল আমার খেলে অনুক্ষণ”, কবি কাজী নজরুল ইসলামের কলমে এই অপূর্ব গানটির অলঙ্করণ মনে পড়ে? শব্দের অলঙ্কার সুন্দর করে তোলে মনের ভাবনা তেমনই ধাতব গহনার অলঙ্কার অঙ্গন্যাস করে। সে যাই হোক রাত পোহালেই পরমেশ্বর শ্রীকৃষ্ণের জন্মোৎসবে মেতে উঠবে গোটা দেশ। কৃষ্ণলীলাস্থল বৃন্দাবন, মথুরা থেকে সুদুর পশ্চিমে সৌরাষ্ট্রের কাছে অবস্থিত দ্বারকায় ধুমধাম করে পালিত হবে শ্রীকৃষ্ণজন্মাষ্টমী।

আর এই সমস্ত স্থানেই শ্রী কৃষ্ণের বিশেষ অভিষেক, ভোগ-আরতি হয়ে থাকে জন্মাষ্টমীর দিনে। পাশাপাশি এই সব মন্দিরে শ্রী কৃষ্ণের মূর্তিতে অপূর্ব শৃঙ্গার করা হয়। এক একটি মন্দিরে এক-একরকম সাজসজ্জার ধরন চলে আসছে বহু বছর ধরে।

শুধু মন্দিরে নয় বহু মানুষের বাড়িতেও জন্মাষ্টমীর মহোৎসব পালিত হয়ে থাকে। প্রত্যেকেই চান তাঁদের ঘরের ছোট-বড় গোপালের মূর্তিকে সুন্দর করে সাজিয়ে তুলতে। বৃন্দাবনের ব্রজ কিশোর গোপাল অথবা মথুরাধিপতির রাজবেশ, এসব দূর থেকে দেখে আপনারও নিশ্চই ইচ্ছা হয়, আপনার গোপালের মূর্তিটি সেই আদলে সাজাতে।

কলকাতার হাতিবাগান, গড়িয়াহাটে চলে গেলেই পেয়ে যাবেন সাধ্যের মধ্যে সেই স্বপ্নপূরণের ঠিকানা। মসৃন কাপড়ে জরি-চুমকির অপূর্ব কারুকার্যে তৈরি হয়েছে ছোট বড় বিভিন্ন মাপের গোপালের পোশাক। কোনটা বৃন্দাবনী স্টাইল আবার কোনটা মখমলের ধুতির রাজবেশ। আবার সম্পূর্ণ ময়ূরের পালক দিয়েও তৈরি হয়েছে অদ্ভুত সুন্দর রাজবেশ। দামের হেরফের হয়না তেমন কিছু। ৫০ থেকে ১০০ টাকার মধ্যে সুন্দর সুন্দর হাতে তৈরি পোশাক পেয়ে যাবেন ফুটপাতের হকারদের কাছে।

শুধু পোশাক নয়, নানা রকমের হাতে তৈরি পাগরী, মুক্ত, পুঁতি দিয়ে তৈরি মুকুটের পসরা নিয়ে রাস্তার ধারে অস্থায়ী দোকান করে বসেছেন ব্যবসায়ীরা। সারা বছরই এসব অস্থায়ী দোকানে পেয়ে যাবেন রঙ বেরঙের ঠাকুরের পোশাক। জন্মাষ্টমীর আগের দিন ভিড়ও ছিল চোখে পড়ার মতো। শেষ মুহুর্তের কেনা কাটার খোঁজ নিয়ে জানলাম, এবছর জোগানের তুলনায় চাহিদা অনেক কম। কাপড়ের দাম বাড়ায় নতুন কাপড়ের কাটপিসের দামও বেড়েছে।

দাম বেড়েছে জরি, চুমকির, ফলে ব্যবসায়ীরা বেশ চিন্তায় রয়েছেন জন্মাষ্টমীর বাজার নিয়ে। শাস্ত্র মতে আজ থেকে ৫২৪৫বছর আগে উত্তরভারতের মথুরায় জন্মগ্রহন করেছিলেন শ্রী কৃষ্ণ। হিন্দু শাস্ত্রে ভাগবৎ পুরাণে বর্ণিত আছে তিনি ছিলেন ভগবান বিষ্ণুর অষ্টম অবতার। মথুরাধীপতি কংশের ভগিনীর অষ্টম গর্ভের সন্তান। আবার পক্ষান্তরে বলা হয় বলভদ্র অর্থাৎ শ্রী কৃষ্ণের জ্যেষ্ঠ ভ্রাতা বলরাম ছিলেন দ্বাপর যুগে বিষ্ণুর পূর্ণ অবতার। সকাল সকাল আদরের গোপালকে সাজিয়ে তুলতে দেখে নিন পছন্দের পোশাকের পসরা….