Date : 2019-09-19

একই মঞ্চে ছয় ধর্মগুরুর মত বিনিময় করে সম্প্রীতির অভিনব বার্তা দিলেন এই কিশোরী…..

ওয়েব ডেস্ক: ভিন্ন ভিন্ন ধর্মে বিশ্বাস ভিন্ন ভিন্ন। আর সেই বিশ্বাস নিয়েই গড়ে উঠেছে নানা সংস্কার। পৃথিবীর কম বেশি সব দেশেই ধর্মীয় বিশ্বাসের কারণে মানুষের মধ্যে ভেদাভেদ সৃষ্টি হয়। বিশেষ করে ভারতের মতো দেশগুলিতে ধর্মের নামে সংঘাত এখন অত্যন্ত স্পর্শ কাতর বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির প্রচার করার জন্য একটি ডিজিটাল মঞ্চ তৈরি করল গুরুগ্রামের কিশোরী আয়েষা ঢাল। শ্রীরাম স্কুল আরাভলির দ্বাদ্বশ শ্রেণির ছাত্রীর বানানো এই মঞ্চের নাম ‘ওয়াই৪আরএইচ’।

৩ আগস্ট বিভিন্ন ধর্মের গুরুদের একটি প্যানেল বৈঠকের মাধ্যমে শুরু হয় এই মঞ্চের পথচলা। দ্বাদশ শ্রেনীর এই ছাত্রীর প্রচেষ্টা অত্যন্ত প্রসংশা পেয়েছে নেটিজেনদের কাছে। বিভিন্ন ধর্মের মধ্যে মিল ও অমিল নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে বিভিন্ন ধর্মগুরুদের সঙ্গেই তিনি আলোচনা করেন এবং তিনি শেষে জানিয়েছেন বিভিন্ন ধর্মের মধ্যে অমিলের চেয়ে মিলই অনেক বেশি। দেশের যুব সমাজের মধ্যে ধর্ম সম্পর্কে কুসংস্কার দূর করতেই তিনি এই প্রয়াস চালাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

ধর্মনিরেপেক্ষতা ও খ্রীষ্টানবাদের গবেষক ডঃ এম খ্রিস্টু ডসের মতে, মানুষের ধারণা তার নিজের বিশ্বাসই সঠিক এবং সেই বিশ্বাসের ‘রক্ষা’ করতে হবে। এই ধারণা নিয়েই যত বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। হিন্দু আইন, গীতা এবং সংস্কৃত বিশারদ উপাসনা ঢঙ্কার সংবাদমাধ্যমকে জানান, এদেশের মানুষ যতই বিভিন্ন সমাজ ও ধর্মের সঙ্গে যুক্ত হবে ও তাদের সম্পর্কে অবগত হবে তত বেশি সম্প্রীতর পরিবেশ গড়ে উঠবে। এদেশের মানুষের উচিৎ ধর্মবিশ্বাসী হওয়ার আগে ভারতবাসী হয়ে ওঠা।